১১ নভেম্বর থেকে ২য় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

আগামী ১১ নভেম্বর ২য় ধাপে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র ক্রয়, যাচাই-বাছাই শেষে সকল চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্ধ দেয়া হয়। 

বুধবার (২৭ অক্টোবর) সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত উপজেলা নির্বাচন অফিসে এনায়েতনগর, গোগনগর ও কুতুবপুর ইউনিয়নের সকল চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্ধ দেয়া হয়। এদিন নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ৬০জন চেয়ারম্যান, ১১৯ জন সাধারন এবং সংরক্ষিত আসনে ২৮ জনকে প্রতীক দেওয়া হয়েছে। 

সকাল থেকেই সকল চেয়ারম্যান ও মেম্বার প্রার্থীগণ তাদের সমর্থকদের নিয়ে উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তার অফিসে জড়ো হন। গোগনগর ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজর আলী মটর সাইকেল প্রতীক, নূর হোসেন ঘোড়া প্রতীক, ৯নং ওয়ার্ডে আইয়ুব আলী মোরগ মার্কা, ৬নং ওয়ার্ডে দেলোয়ার হোসেন বৈদ্যুতিক পাখা, ৭নং ওয়ার্ডে তোফাজ্জল হোসেন তালা প্রতীক, ৮নং ওয়ার্ডে সম্রাট সরদার মোরগ প্রতীক, ৫নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রফিক ক্রিকেট ব্যাট প্রতীক। চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কাশেম মুন্সি হাতপাখা প্রতীক।

কুতুবপুর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী শাহ মোঃ আফানুর সুইট, ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী জামান মিয়া, ৭নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী আবু বক্কর, ৮নং ওয়ার্ডের মেম্বার  প্রার্থী ঈমান আলি, ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার প্রার্থী খন্দকার রাজু আহমেদ রাজা। 

এনায়েতনগর ইউনিয়নের ১,২,৩ সংরক্ষিত আসনের মেম্বার প্রার্থী মনোয়ারা বেগম লিপি, এনায়েতনগর ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী হাজী আওলাদ হোসেন, ৬নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী মোশারফ হোসেন, ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী জাকারিয়া জাকির, ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী শাহজাহান মাদবর, ৭নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী হুমায়ন কবির বাহাদুর, ৮নং ওয়ার্ড মেম্বার প্রার্থী আসলাম মন্ডল, ৯নং ওয়ার্ড মেম্বারপ্রার্থী আফতাব উদ্দিন আফাজ প্রমুখ।