1. [email protected] : সকাল নারায়ণগঞ্জ : সকাল নারায়ণগঞ্জ
  2. [email protected] : skriaz30 :
  3. : wpcron20dc4723 :
বিপিএলে নাজমুল হোসেন শান্তর প্রথম সেঞ্চুরি - সকাল নারায়ণগঞ্জ
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৪:৫২ অপরাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট
এরশাদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মুন্সিগঞ্জ জেলা জাপা’র মিলাদ , দোয়া ও খাবার বিতরন  রূপগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬ অপহরণকারী আটক  জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঠিকাদারদের সাথে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ”র মতবিনিময় সভা-সম্পন্ন  ফ‌টো সাংবা‌দিক ‌মোক্তা‌র হোসেনের মাতার ইন্তেকা‌লে আজ‌মেরী ওসমা‌নের গভীর শোক না’গঞ্জ জেলা ও মহানগর ঐক‌্য প‌রিষ‌দের কর্মী স‌ম্মেলন অনু‌ষ্ঠিত পূর্বাচলে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ রূপগঞ্জে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বিশেষ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধে শরণার্থী শিবিরে ভারতের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সাকিব খানের গোপনাঙ্গ কেটে ফেললেন স্ত্রী  রূপগঞ্জে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ

বিপিএলে নাজমুল হোসেন শান্তর প্রথম সেঞ্চুরি

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ
  • আপডেট রবিবার, ১২ জানুয়ারী, ২০২০
  • ৪৯০ Time View
বিপিএলে নাজমুল হোসেন শান্তর প্রথম সেঞ্চুরি
বিপিএলে নাজমুল হোসেন শান্তর প্রথম সেঞ্চুরি (ছবি সংগ্রহীত)

সকাল নারায়ণগঞ্জ অনলাইন ডেস্কঃ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) প্রথম সেঞ্চুরির করেছেন নাজমুল হোসেন শান্ত। তরুণ এ ওপেনার শনিবার ঢাকা প্লাটুনের বিপক্ষে ২০৬ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে ব্যাটিং তাণ্ডব চালিয়ে সেঞ্চুরি তুলে নেন। ৫১ বলে ৭টি চার ও ৫টি ছক্কায় শতরানের মাইলফলক স্পর্শ করেন শান্ত।

এর আগে বিপিএল ইতিহাসে দেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে তামিম ইকবাল, সাব্বির রহমান রুম্মন, মোহাম্মদ আশরাফুল ও শাহরিয়ার নাফীস সেঞ্চুরি করেছেন।

বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজের সঙ্গে ৬.৫ ওভারে ৭০ রানের জুটি গড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২৫ বলে ৪৫ রান করে মিরাজ আউট হওয়ার পর দ্বিতীয় উইকেটে রাইলি রুশোর সঙ্গে গড়েন ৮১ রানের জুটি। ১৭ বলে ২৩ রান করে রুশো আউট হলেও ব্যাটিং তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন শান্ত।

একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে প্রথম ২৭ বলে ৫০ রান করা শান্ত পরের ২৪ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন। তার ৫৭ বলে ৮ চার ও দৃষ্টিনন্দন ৭টি ছক্কায় সাজানো ১১৫ রানের অনবদ্য ইনিংসে ভর করে বিপিএল ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২০৫ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করে ৮ উইকেটের বিশাল জয় পেল খুলনা।

শনিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করে ৪ উইকেটে ২০৫ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ঢাকা প্লাটুন। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৯১ রান করেন মুমিনুল হক সৌরভ। এ ছাড়া ৬৮ রান করেন মেহেদী হাসান।

টার্গেট তাড়া করতে নেমে নির্ধারিত ওভারের ১১ বল হাতে রেখে ৮ উইকেটের বিশাল ব্যবধানে হেসে-খেলেই জয় পায় খুলনা টাইগার্স। দলের জয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন তরুণ ব্যাটসম্যান নাজমুল হোসেন শান্ত। বিপিএল ক্যারিয়ারে প্রথম এবং পঞ্চম বাংলাদেশি ব্যাটসম্যান হিসেবে সেঞ্চুরি তুলে নেন শান্ত।

এর আগে বিপিএল ইতিহাসে দেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে তামিম ইকবাল, সাব্বির রহমান রুম্মন, মোহাম্মদ আশরাফুল ও শাহরিয়ার নাফীস সেঞ্চুরি করেছেন।

ঢাকার বিপক্ষে বিশাল টার্গেট তাড়া করতে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজের সঙ্গে উদ্বোধনীতে ৬.৫ ওভারে ৭০ রানের জুটি গড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২৫ বলে ৪৫ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে সাজঘরে ফেরেন মিরাজ। এরপর দ্বিতীয় উইকেটে খুলনার দক্ষিণ আফ্রিকান ব্যাটসম্যান রাইলি রুশোর সঙ্গে গড়েন ৮১ রানের জুটি। ১৭ বলে ২৩ রান করে রুশো আউট হলেও ব্যাটিং তাণ্ডব অব্যাহত রাখেন শান্ত।

একের পর এক বাউন্ডারি হাঁকিয়ে প্রথম ২৭ বলে ৫০ রান করা শান্ত পরের ২৪ বলে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েন। তার ৫৭ বলে আট চার ও দৃষ্টিনন্দন ৭টি ছক্কায় সাজানো ১১৫ রানের অনবদ্য ইনিংসে ভর করে বিপিএল ইতিহাসে সর্বোচ্চ ২০৫ রানের বিশাল টার্গেট তাড়া করে ৮ উইকেটের বিশাল জয় পেল পেল খুলনা।

শনিবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে ৩৫ রানে তামিম ইকবাল, এনামুল হক বিজয় ও জাকির আলীর উইকেট হারিয়ে বিপর্যয়ে পড়ে যায় ঢাকা।

গর্তে পড়ে যাওয়া দলকে খেলায় ফেরাতে বাড়তি দায়িত্বশীলতার পরিচয় দেন মুমিনুল হক ও মেহেদী হাসান। চতুর্থ উইকেটে বিপিএল রেকর্ড ১৫৩ রানের জুটিতে বিপর্যয় এড়িয়ে ২০৫ রানের চ্যালেঞ্জিং স্কোর গড়ে ঢাকা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৯ বলে ৯১ রান করেন মুমিনুল। তার ইনিংসটি ৭টি চার ও ৪টি ছক্কায় সাজানো।

বিপিএল সপ্তম আসরে এটা মুমিনুলের দ্বিতীয় ফিফটি। সবশেষ পাঁচ ম্যাচে ২৪.৬ গড়ে ১২৩ রান করা মুমিনুল এ দিন রীতিমতো ব্যাটিং তাণ্ডব চালান। টেস্ট স্পেশালিস্ট খ্যাত এ ক্রিকেটার যে টি-টোয়েন্টির সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটে অসাধারণ ব্যাটিংয়ের সক্ষমতা রাখেন তার একটি জ্বলন্ত উদাহরণ পেশ করলেন শনিবার।

শুধু মুমিনুলই নন! প্রত্যাশার চেয়েও ভালো খেলেছেন মেহেদী হাসান। ২০১৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে জাতীয় দলের হয়ে একটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলে বাদ পড়ে যাওয়া মেহেদী শনিবার ব্যাটিংশৈলী প্রদর্শন করেছেন। মাত্র ৩৬ বল খেলে ৩টি চার ও ৫টি ছক্কায় ১৮৮.৮৮ স্ট্রাইক রেটে ৬৮ রান করেন মেহেদী হাসান। চলতি বিপিএলে এটা তার তৃতীয় ফিফটি। এর আগে ৫৬ ও ৫৯ রানের ইনিংস খেলেছেন তিনি।

মুমিনুল আর মেহেদীর ব্যাটিং ঝড়ে দিশেহারা হয়ে যান খুলনা টাইগার্সের তারকা বোলার মোহাম্মদ আমির, রবি ফ্রাঙ্কলিঙ্ক, শফিউল, শহিদুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজরা।

আরও সংবাদ
© ২০২৩ | সকল স্বত্ব সকাল নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক সংরক্ষিত
DEVELOPED BY RIAZUL