২য় বিভাগ ক্রিকেট লীগ ২০২০-২১ শ^াসরুদ্ধকর ম্যাচে জয়ী বাবুল ক্রিকেট একাডেমী

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

কয়েকদিনের গুড়িগুড়ি বৃষ্টির পর অবশেষে রোদের ঝলমলে আলো। খেলা হলো। তবে ওভার কর্তন করে। ৩ রানের শ^াসরুদ্ধকর ম্যাচে জয় পেল ইসমাইল বাবুল ক্রিকেট একাডেমী। ৪০ ওভারের ম্যাচের দৈঘ্য কমে দাঁড়ায় ১৬ ওভারে। টস জিতে মহসিন জুনিয়রের অধিনায়ক ইফতেখার রাতুল প্রথমে ব্যাট করতে পাঠায় ইসমাইল বাবুল ক্রিকেট একাডেমীকে। ১৬ ওভারে বাবুল ক্রিকেট একাডেমী ৬ উইকেট খুইয়ে রান তোলে ১১৬।

ওপেনার খালেদ সাইফুল্লাহ ২ চার ও ১ ছক্কায় করেন ৩১ রান। সোয়ান সাকিন ৩ ছয়ে ৩৮ রানে রিটায়ার্ড আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরেন। সুব্রত ২ চার ও ১ ছক্কায় ১৯ রান এবং অধিনায়ক মুন্না ১১ রান করেন। মহসিন জুনিয়রের দেওয়ান ইসলাম ১৮ রানে পান ২ উইকেট। ১১৭ রানের লক্ষ্য নিয়ে মাঠে নামে মহসিন ক্লাব জুনিয়র। পেন্ডুলামের ঘড়ির মত খেলা একবার বাবুল ক্রিকেট একাডেমী আরেকবার মহসিন ক্লাব জুনিয়রের দিকে ঘুরতে থাকে।

মাঠে উপস্থি দর্শকরা প্রাণভরে উপভোগ করে ম্যাচটি। মহসিন ক্লাব জুনিয়রের অধিনায়ক ইফতেখার সিদ্দিক রাতুল খেলেছেন অসাধারণ ইনিংস। যতক্ষণ খেলেছেন ততক্ষণ তাঁর দল জয়ের রাস্তায়। দূর্ভাগ্য রাতুলের। রানআউটে কাটা পড়ে তাঁর ইনিংস। ৫৮ রান করেন রাতুল ৩ ছয় ও ৪ চারে। তুষার আউট হন ২ চারে ১২ রানে। মহসিন ক্লাব জুনিয়রের চারজন ব্যাটার রানআউট হয়েছেন। ১০ বলে ১১ রান। শেষ ওভারে শরিফের বলে নিতে পারলোনা জুনিয়রের ছেলেরা। জেতার খুব নিকটে থেকে পরাজয়ের বেদনা নিয়ে মাঠ ছাড়লো মহসিন ক্লাব জুনিয়র।

সংক্ষিপ্ত স্কোর ঃ ইসমাইল বাবুল ক্রিকেট একাডেমী-১১৬/৬(১৬ ওভার) সোয়ান সাকিন-৩৮,খালেদ সাইফুল্লাহ-৩১,সুব্রত-১৯,মুন্না-১১। অতিরিক্ত-১১। রেদওয়ান-২/১৮।

খানপুর মহসিন ক্লাব জুনিয়র-১১৩*৮(১৬ ওভার) ইফতেখার সিদ্দিক রাতুল-৫৮,তুষার-১২। অতিরিক্ত-১৩। সুব্রত,নাইমুর ও শরিফ ১টি করে উইকেট পান।

আজকের খেলা ঃ মহসিন ক্লাব ও পাইকপাড়া ক্রিকেট একাডেমী

সকাল-৯.০০ টা। সামসুজ্জোহা ক্রীড়া কমপ্লেক্স(ক্রিকেট গ্রাউন্ড)