নিজেদের আত্মত্যাগ ও সাহসীকতা ছাড়া এই সরকারকে হঠানো যাবে না-মাশুকুল ইসলাম রাজিব

  • সকাল নারায়ণগঞ্জ

 

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজিব বলেছেন, বর্তমান এই সরকারকে হঠাতে হলে বিএনপি নেতাকর্মীদের আত্মত্যাগের রক্তের প্রয়োজন।

 

নিজেদের আত্মত্যাগ ও সাহসীকতা ছাড়া এই সরকারকে হঠানো যাবে না। কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হওয়ার দৃষ্টান্ত স্থাপন করার সময় আমাদের সামনে। আওয়ামী লীগের নেতারা যে ভাষায় কথা বললে আমাদেরকেও সেই ভাষাই জবাব দিতে হবে।

 

বিএনপি ঘোষিত যুগপৎ আন্দোলনে ১০ দফা দাবি ও রাষ্ট্রকাঠামো মেরামতের রূপরেখা নিয়ে ব্যাখ্যা ও বিশ্লেষণ শীর্ষক নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আলোচনা সভায় সঞ্চালনা কালে বক্তব্যে রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা গুলো বলেন। রবিবার (৮ জানুয়ারি) সকাল ১১টায় সিদ্ধিরগঞ্জ চিটাগাংস্থ তাজমহল চাইনিজ রেস্টুরেন্ট এন্ড পার্টি সেন্টারে এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

 

তিনি বলেন, রাষ্ট্র কাঠামো পরিচালনা কিভাবে চালাবে সেটা জাতীয় নেতৃবৃন্দরা সিদ্ধান্ত নিবেন। কিন্তু বিএনপির নেতাকর্মীদের উচিত এই ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত যে রাজনীতি বাংলাদেশে বিরাজ করছে তা মোকাবেলার জন্য মানসিকভাবে প্রস্তুতি নিতে হবে। সকলের মাঝে সেই মানসিকতা সৃষ্টি হোক এ প্রত্যাশা করছি।

 

রাজিব প্রশাসনকে উদ্দেশ্য করে বলেন, বাংলাদেশের যারা প্রশাসনিক লীগ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন আপনাদের উঠিৎ জনগণের পক্ষে থাকা। আপনারা কোনো দলের নেতা কিংবা কর্মী নয়। আপনারা হলের এদেশের মানুষের সেবক। সুতরাং আপনারা কোনো দলের পক্ষ নিয়ে বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের দমন করার চেষ্টা করবেন না।

 

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির আহ্বায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও মাশুকুল ইসলাম রাজিবের সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান এড. আহমদ আযম খান। এছাড়াও আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির নির্বাহী কমিটির বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী মনিরুজ্জামান মনির, আজহারুল ইসলাম মান্নান, মোস্তাফিজুর রহমান ভূঁইয়া দিপু, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সদস্য সচিব গোলাম ফারুক খোকন, যুগ্ম আহ্বায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজিব, লুৎফর রহমান খোকা, জুয়েল আহম্মেদসহ জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।