বন্দরে ধারালো অস্ত্র ও অটোগাড়ীসহ জনতা কর্তৃক ৩ ছিনতাইকারী আটক

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

বন্দরে ছিনতাইয়ের প্রস্তুতিকালে ধারালো অস্ত্র ও ছিনতাইকাজে ব্যবহারকৃত একটি অটোগাড়ীসহ ৩ ছিনতাইকারীকে আটক করে কামতাল তদন্ত কেন্দ্র পুলিশে সোর্পদ করেছে স্থানীয় জনতা। ওই সময় ছিনতাইকারিরা জনতার উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে পালিয়ে গেছে অজ্ঞাত নামা আরও দুই ছিনতাইকারি। 

বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাত সাড়ে ৯টায় বন্দর উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের লাঙ্গবন্ধস্থ প্রেমতলা এলাকা থেকে ওই ছিনতাইকারিদের আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে জনতা। 

আটককৃত ছিনতাইকারীরা হলেন, পুরান বন্দর চৌধূরীবাড়ি এলাকার আলমগীর হোসেন মিয়ার ছেলে রিয়াদ হোসেন (২২) একই এলাকার সাগর চন্দ্র দেব নাথের ছেলে প্রান্ত চন্দ্র দেবনাথ (২২) ও কলাগাছিয়া ইউনিয়নের সেলসারদী কবরস্থান সংলগ্ন এলাকার আবুল হোসেন মিয়া ছেলে শাকিল (২১)। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী কাজল মিয়া বাদী হয়ে আটককৃত তিন ছিনতাইকারিসহ ৫ জনকে আসামী করে বন্দর থানায় দ্রুত বিচার আইনে একটি মামলা দায়ের করে। যার মামলা নং- ২৭(৪) ২২। 

তথ্য সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (১৪ এপ্রিল) রাতে বন্দর থানার বারপাড়া এলাকার শাহাবুদ্দিন মিয়ার ছেলে কাজল মিয়া বাড়ি উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে  লাঙ্গবন্ধ প্রেমতলা এলাকায় আসলে ওই সময় একটি অটোগাড়ী যোগে আসা ৫ জন ছিনতাইকারি কাজলের পথরোধ করে। পরে ধারালা অস্ত্রে ভয় দেখিয়ে টাকা পয়সা ও মোবাইল সেট ছিনতাই করার সময় স্থানীয় জনতা দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে অটোগাড়ী ও ধারালো অস্ত্রসহ রিয়াদ, প্রান্ত ও শাকিল নামে তিন ছিনতাইকারিকে আটক করতে সক্ষম হয়। ওই সময় আরও অজ্ঞাত নামা দুই ছিনতাইকারি কৌশলে পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পরে স্থানীয় জনতা আটককৃত তিন ছিনতাইকারি কামতাল তদন্ত কেন্দ্র পুলিশে সোর্পদ করে। পুলিশ এলাকাবাসীর সহতায় ছিনতাইকারিদের কাছ থেকে ১টি ধারালো অস্ত্র, একটি মোবাইল সেট ও ছিনতাইকাজে ব্যবহারকৃত একটি অটোগাড়ী উদ্ধার করে। পরে পুলিশ আটককৃত তিন ছিনতাকারিকে ১৫ এপ্রিল শুক্রবার দুপুরে দ্রুত বিচার আইনে মামলায় আদালতে প্রেরণ করেছে।