1. sokalnarayanganj@gmail.com : সকাল নারায়ণগঞ্জ : সকাল নারায়ণগঞ্জ
  2. skriaz30@gmail.com : skriaz30 :
  3. : wpcron20dc4723 :
সুনির্দিষ্ট নীতিমালার মাধ্যমে ডিএসসিসি’র প্রতিটি ওয়ার্ডে কৃষকের বাজার করার আহ্বান - সকাল নারায়ণগঞ্জ
রবিবার, ১৪ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৫১ অপরাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট
সিয়াম তালুকদার এর পক্ষ থেকেনারায়ণগঞ্জবাসীকে ঈদ এর শুভেচ্ছা য়ানূর তালুকদার এর পক্ষ নারায়ণগঞ্জবাসীকে শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক জামাল তালুকদার এর পক্ষ থেকে নারায়ণগঞ্জবাসীকে শুভেচ্ছা ও ঈদ মোবারক একরামপুর যুব সমাজের উদ্যোগে গরুর গোস্ত সহ ঈদ উপহার বিতরণ করা হয়।  অয়ন ওসমা‌নের প‌ক্ষে ছিন্নমূল শিশু‌দের ইফতার ও ঈদ উপহার দি‌লো ছাত্রলীগ নেতা নিলয় ৩ হাজার প‌রিবার‌কে ঈদ সামগ্রী উপহার দি‌লো প্রয়াত না‌সিম ওসমান পুত্র আজ‌মেরী ওসমান সা‌বেক কমিশনার শেখ নিজাম আলমের ৩০তম মৃত্যুবার্ষিকীতে মিলাদ ও দোয়া অনু‌ষ্ঠিত পবিত্র ঈদুল ফিতর উপল‌ক্ষে না’গঞ্জ ইউনেস্কো ক্লাবের বস্ত্র বিতরণ  সিদ্ধিরগঞ্জে হিলফুল ফুজুল যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রী বিতরণ রূপগঞ্জের গরিব মানুষের মধ্যে ঈদসামগ্রী বিতরণ

সুনির্দিষ্ট নীতিমালার মাধ্যমে ডিএসসিসি’র প্রতিটি ওয়ার্ডে কৃষকের বাজার করার আহ্বান

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ
  • আপডেট শুক্রবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩
  • ১০০ Time View
  • সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

 

 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ১, ১৯, ২৬, ৩৯, ৫৫, এবং ৫৬ নং ওয়ার্ডে ৬টি কৃষকের বাজার প্রতি শুক্রবারে নিয়মিত পরিচালিত হচ্ছে। স্বল্প পরিসরে হলেও বাজারগুলো ঢাকাবাসীর পুষ্টির চাহিদা পূরণে ভূমিকা রাখছে। ইতোমধ্যে ভোক্তাদের মাঝে বাজারগুলো জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে। একটি সুনির্দিষ্ট নীতিমালার মাধ্যমে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মহোদয়ের নের্তৃত্বে বাজারগুলো টেকসই করার পাশাপাশি প্রতিটি ওয়ার্ডে কৃষকের বাজার গড়ে তোলা আবশ্যক। আজ ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, সকাল ১০.০০ টায় রাজধানীর একটি হোটেলে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের কৃষকের বাজারের অভিজ্ঞতা বিনিময় বিষয়ক কর্মশালায় বক্তারা এ কথা বলেন।

 

ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর সিনিয়র প্রজেক্ট ম্যানেজার জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের উন্নয়ন অধিশাখার যুগ্মসচিব নুমেরী জামানের সভাপতিত্বে আয়োজনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্ট এর প্রজেক্ট ম্যানেজার নাঈমা আকতার। উক্ত কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মিজানুর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ জনাব মোঃ শহিদ উল্লাহ, এবং স্থানীয় সরকার বিভাগের উপসচিব মোঃ মুস্তাফিজুর রহমান। আয়োজনে বক্তব্য রাখেন ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের পরিচালক গাউস পিয়ারী, ঢাকা ফুড সিস্টেম প্রজেক্টের সিনিয়র টেকনিক্যাল এডভাইজার জাভিয়ে বোয়ান, ন্যাশনাল প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর জয়নাল আবেদীন।

 

 

স্থানীয় সরকার বিভাগের উন্নয়ন অধিশাখার যুগ্মসচিব নুমেরী জামান বলেন, কৃষকের বাজার প্রকল্পটির উদ্দেশ্য হলো দীর্ঘমেয়াদে মানুষকে স্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাসের দিকে আগ্রহী করে তোলা। পরিবহন ব্যবস্থা বাজারে কৃষকদের জন্য একটি চ্যালেঞ্জ। কৃষকরা তাদের লাভের অংশ দিয়ে পরিবহন ব্যবস্থা করতে পারে। আরো কিছুদিন যদি প্রণোদনা দেয়ার প্রয়োজন হয় সেক্ষেত্রে সিটি কর্পোরেশনের পরিবহনগুলো কাজে লাগানো যেতে পারে। এ প্রকল্পটি শেষ হয়ে গেলেও নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে আমরা কিছু পরিবর্তন নিয়ে আসতে পারবো যার মাধ্যমে প্রতিটি সিটি কর্পোরেশন ও মিউনিসিপালিটিতে কৃষকের বাজার সম্প্রসারিত করা সম্ভব হবে।

 

 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মিজানুর রহমান বলেন, বর্তমান বাজার ব্যবস্থা ভোক্তার সন্তুষ্টির উপর নির্ভরশীল। কৃষকের বাজার ভোক্তা ও কৃষক উভয়ের সন্তুষ্টি অর্জনে সক্ষম হয়েছে। নিরাপদ চাষে কৃষকদের উৎসাহিত করার জন্য কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরকে উদ্যোগী হতে হবে। বাজারগুলো টেকসই করার ক্ষেত্রে স্থানীয় কাউন্সিলরদের সহযোগিতা ও সম্পৃক্ততা প্রয়োজন।

 

 

ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র-১ জনাব মোঃ শহিদ উল্লাহ বলেন, বাজারগুলো টেকসই করার জন্য আজকে আপনার যে মতামত দিয়েছেন, সে অনুযায়ী আমরা উদ্যোগ গ্রহণ করবো। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি ওয়ার্ডে কৃষকের বাজার স্থাপনের উদ্যোগ গ্রহণ করা প্রয়োজন।

 

 

ঢাকা ফুড সিস্টেম প্রজেক্টের সিনিয়র টেকনিক্যাল এডভাইজার জাভিয়ে বোয়ান বলেন, কৃষকের বাজার অন্য বাজারের থেকে পৃথক। কারণ এখানে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর থেকে যাচাইকৃত কৃষক নিরাপদ খাদ্য সরবরাহ করছে এবং জনগণের নিরাপদ খাদ্যের চাহিদা পূরণে অবদান রাখছে। মন্ত্রণালয় থেকেও কৃষকের বাজার গুরুত্ব পেয়েছে। আমরা প্রত্যাশা করি, এ বাজারগুলো স্থায়ী হবে এবং সংখ্যায় বৃদ্ধি পাবে।

 

ঢাকা ফুড সিস্টেম প্রজেক্টের ন্যাশনাল প্রজেক্ট কো-অর্ডিনেটর জয়নাল আবেদীন বলেন, ঢাকা ফুড সিস্টেম প্রকল্প নগরের খাদ্য ব্যবস্থা উন্নয়নে কাজ করছে। বর্তমানে আমরা ঢাকা ফুড এজেন্ডা ২০৪১ তৈরিতে কাজ করছি, যা অনুমোদিত হলে ঢাকার খাদ্য ব্যবস্থাপনা উন্নয়নে কার্যকরী ভূমিকা পালনে আমরা সক্ষম হবো।

 

 

ওয়ার্ক ফর এ বেটার বাংলাদেশ ট্রাস্টের পরিচালক গাউস পিয়ারী বলেন, নগরবাসীকে নিরাপদ ও স্বাস্থ্যকর খাদ্য পৌঁছে দিতে ঢাকা ফুড সিস্টেম প্রকল্পের আওতায় ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ৬টি ওয়ার্ডে সকল অংশীদারদের সমন্বয়ে কৃষকের বাজার স্থাপিত হয়েছে। প্রকল্প শেষে বাজারগুলো টেকসই করে তোলার কৌশল নিরূপণই আজকের কর্মশালার মূল উদ্দেশ্য।

 

 

আয়োজনে আরো বক্তব্য রাখেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের অঞ্চল ২ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা সুয়ে মেন জো, অঞ্চল ৩ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা বাবর আলী মীর, অঞ্চল ৫ এর আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ সাখাওয়াত হোসেন সরকার, ওয়ার্ড ১৯ এর কাউন্সিলর আবুল বাশার, ওয়ার্ড ৩৯ এর কাউন্সিলর রোকনউদ্দিন আহমেদ, ওয়ার্ড ২৬ এর কাউন্সিলর মোঃ হাসিবুর রহমান,  ওয়ার্ড ১,১১,১২ এর সংরক্ষিত কাউন্সিলর ফারহানা ইসলাম, ওয়ার্ড ৫৫,৫৬,৫৭ এর সংরক্ষিত কাউন্সিলর শেফালী আক্তার, সাভার উপজেলার কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সবুজ চৌধুরী, কেরাণীগঞ্জের উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শহীদুল আমিন, আয়োজনে আরো উপস্থিত ছিলেন ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের উর্ধ্বতন কর্মকতাবৃন্দ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দ, ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের ফুড সিস্টেম সিটি কো-অর্ডিনেটর শরীফা পারভীন, সাসটেইনেবেল এগ্রিকালচার স্পেশালিস্ট জাহাঙ্গীর আলম, কৃষকের বাজার কমিটির সদস্যবৃন্দ।

 

আরও সংবাদ
© ২০২৩ | সকল স্বত্ব সকাল নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক সংরক্ষিত
DEVELOPED BY RIAZUL