হাজীগঞ্জে জেনারেটর ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে হত্যা, আটক:১

lead
ফোল্ডার

সকাল নারায়ণনগঞ্জঃ হাজীগঞ্জ এলাকার মাহমুদুল হক বাবুল (৫১) নামে এক জেনারেটর ব্যবসায়ীকে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। রোববার (৬ অক্টোবর) দিবাগত রাতে হাজীগঞ্জ বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ এ ঘটনায় রাকিব নামে একজনকে আটক করেছে। নিহত বাবুল হাজীগঞ্জ এলাকার মরহুম জালাল উদ্দিনের ছেলে।

নিহতের বড় ভাই জুয়েল জানান, বাবলু হাজীগঞ্জ বাজারে টিভি ফ্রিজ মেরামতের দোকান এবং বাজারের দোকানগুলোতে জেনারেটরের সংযোগ দিয়ে ব্যবসা করেন। জেনারেটরের ব্যবসার বিরোধে আলম, রাকিব, খালেক সহ অজ্ঞাত আরো কয়েকজন গত রাত ২টায় ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে বাড়ি ফেরার পথে এলোপাথারী পিটিয়ে বাবলুকে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এরপর ¯’ানীয়রা বাবলুকে শহরের খানপুর ৩শ শয্যা হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক বাবলুকে মৃত ঘোষনা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ভাপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে পাঠানো হয়েছে।এ ঘটনায় পুলিশ রাকিব নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে। সে তল্লা সুপারিবাগ এলাকার মৃত বেনু মিয়ার ছেলে। বাকীদের গ্রেফতারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত আছে। তবে কী কারণে এ হত্যাকান্ড তা তদন্তের আগে বলা যা”েছ না।

নিহত বাবলুর খালু এড. আব্দুল মজিদ খন্দকার জানান, বাবলু শান্ত স্বভাবের মানুষ ছিলো। সে কখনো কারো সাথে ঝগড়া করতো না। পেশায় একজন ইলেক্ট্রনিক মেকানিক। পাশাপাশি সে বিশ বছর যাবৎ হাজীগঞ্জ বাজারে শান্তিপূর্ণভাবে জেনারেটর ব্যবসা করে আসছে। বছরখানেক ধরে তল্লা এলাকার বেনু মিয়ার ছেলে আলম ও তার ভাইয়েরা জেরা পূর্বক বাবলুর জেনারেটর ব্যবসা দখল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে। ব্যবসা দখল করতে না পেরেই সংঘবদ্ধভাবে আলম বাহিনী রাতের আঁধারে বাবলুকে নির্মমভাবে পিটিয়ে হত্যা করেছে।