কালের কন্ঠের প্রতিষ্ঠাবাষির্কীতে সম্মাননা প্রদান করা হয় ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানের লেখক হাশিম মাহমুদকে

  • সকাল নারায়ণগঞ্জ

 

 

নারায়ণগঞ্জে পালন করা হয়েছে জাতীয় দৈনিক পত্রিকা কালের কন্ঠের প্রতিষ্ঠাবাষির্কী। মঙ্গলবার (১০ জানুয়ারি) বিকালে নারায়ণগঞ্জ রাফেল ক্লাবে কেক কেটে ওই প্রতিষ্ঠাবাষির্কী পালন করা হয়। এ সময় আলোচনা সভা করা হয় ও সম্মাননা প্রদান করা হয় ‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানের লেখক হাশিম মাহমুদকে।

 

আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও সাংসদ একেএম শামীম ওসমানের সহধর্মিনী সালমা ওসমান লিপি।

 

নারায়ণগঞ্জ কালের কন্ঠ শুভ সংঘের সভাপতি এড. আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে ও এড. কাজি মামুনের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চন্দন শীল, নারায়ণগঞ্জ মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি মোদাসসিরুল হক দুলাল, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান বাদল, নারায়ণগঞ্জ জেলা হিন্দু, বোদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের

 

সাধারণ সম্পাদক রঞ্জিত মন্ডল, অতিথি ছিলেন নারায়ণগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এড. হাসান ফেরদৌস জুয়েল, সাধারণ সম্পাদক রবিউল আমিন রনি, কুতুবপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মনিরুল আলম সেন্টুসহ বিভিন্ন শ্রেণী পেশার নেতৃবৃন্দ।

 

প্রধান অতিথি সালমা ওসমান লিপি বলেন, জানুয়ারি মাসটা আমার জন্য খুব স্পেশাল। কারণ এই মাসে বঙ্গবন্ধু স্বদেশ প্রত্যবর্তণ করেছেন এবং আমার জন্মদিন এই মাসে। কালের কন্ঠের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে অনেক অনেক শুভ কামনা। এটা আমার অনেক পছন্দের, কারণ তারা সততার সাথে কথা বলে। সাংবাদিকরা সমাজের ডাক্তার। আপনাদের প্রেসক্রিপশনে এই সমাজ এগিয়ে যায়। আমি মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান, আমাদের সরকারি একটা সংগঠন। আমাদের পক্ষ থেকে আপনাদের অভিনন্দন জানাই। সমাজে সাংবাদিক প্লাটফর্মটা যদি সচেতন, সৎ, সোচ্চার থাকে তাহলে আমাদের সমাজের অর্ধেক সমস্যা কমে যাবে। তাদের আমরা এমন একটা শ্রদ্ধার আসনে বসানোর চেষ্টা করি, যদি কোন জায়গায় অরাজকতা হলে, অনিয়ম হলে, অন্যায় হলে আমারা তাদের দিকে তাকাই। তাদের প্রেসক্রিপশন কি তাদের মতামত কি।

 

তিনি আরও বলেন, ইদানিংকালে নারায়ণগঞ্জে মুষ্টিময় কিছু কথাবার্তা হয়। আমি এগুলোতে কান দেই না, পাত্তাও দেই, দেয়া উচিৎও না। কিছু কিছু মানুষের কাছে রাজনীতি মানেই দেশ প্রেম নয়। রাজনীতি মানেই মানুষের প্রতি দ্বায়বদ্ধতা নয়। তাদের কাছে রাজনীতি মানেই হেলো সুস্থ পরিবেশকে পায়ে পারা দিয়ে অসুস্থ করা। পুরোপুরি অযৌক্তিক কথা বার্তা বলা। আমি মনে করি এগুলা প্রতিবাদ না করাই সব থেকে শ্রয়। ক্ষমতার বিষে দম্ভ এবং অহংকার এসে যাদের ধরে, অন্ধ সেজন মরে ও মারে। সুতরাং সাংবাদিকদের মাধ্যমে আমরা সাবধান হবো, আমরা সচেতন হবো। আপনাদের কাছে আহবান থাকবে এসব মিথ্যা, অপপ্রচার থেকে যাতে আমরা দূরে থাকি।

 

তিনি বলেন, আমি যদি একটা ভালো কাজ করতে পারি, তাহলে আমি মনে করি আমার জীবন সার্থক ও সফল। আমরা যেনো একজনকে ঠেলে দিয়ে আরেকজন যাতে না উঠি। আমরা যাতে একসাথে সবাইকে নিয়ে উপরে উঠি।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চন্দন শীল বলেন, ১৬ই ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধুকে ছাড়া আমাদের বিজয়ের পূর্ণতা হচ্ছিরো না, পরে ১০ই জানুয়ারি বঙ্গবন্ধু দেশে ফিরে আসলে আমাদের স্বাধীনতা পূর্নতা লাভ করে। বঙ্গবন্দুর জন্য পাকিস্তানের কারাগারে কবর পর্যন্ত খোরা হয়েছিলো, তবে তার পরেও তিনি কারো সাথে আপোস করেন নি। পরে বাংলাদেশের মানুষের চাপেই পাকিস্তান সরকার বঙ্গবন্ধুকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হয়। আজকের এই দিনটা একটি ঐতিহাসিক দিন, আর এই দিনেই কালের কন্ঠের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। তাই আমি কালের কন্ঠের সাথে জরিত সকলকে শুভেচ্চা ও অভিনন্দন জানাচ্ছি।