ফতুল্লার পিলকুনি মোল্লা বাড়ী সংলগ্ন ডোবা থেকে উদ্ধারকৃত লাশের পরিচয় মিলেছে

  • সকাল নারায়ণগঞ্জ

 

 

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পিলকুনি মোল্লা বাড়ী সংলগ্ন ডোবা থেকে উদ্ধারকৃত লাশের পরিচয় মিলেছে।  নিহত যুবকের নাম মো: হাসান (৩০)। সে কুষ্টিয়ার বাজের মাঝির দৌলতপুরস্থ আবু সামেদ মিয়ার ছেলে। পেশায় অটোরিক্সা চালক। নিহত হাসান তার স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে ফতুল্লার কাশিপুর খিল মার্কেটস্থ মজিবরের বাসায় ভাড়ায় বসবাস করতো।

 

শনিবার (৫ নভেম্বর) দুপুরে নিহত হাসানের পরিবারের সদস্যরা ফতুল্লা মডেল থানায় হাসান নিখোঁজ হওয়ার সাধারণ ডায়েরী করতে এসে লাশের ছবি দেখে শনাক্ত করেন।

 

এর আগে শুক্রবার সকালে ফতুল্লার পিলকুনি মোল্লা বাড়ী সংলগ্ন ডোবা থেকে নিহত যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

 

নিহতের স্ত্রী তানিয়া জানান, তার স্বামী হাসান অটোরিক্সা চালক। তাদের সংসারে সীমান্ত (১১) নামক একটি ছেলে ও ইলমা (২) নামক একটি মেয়ে রয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার রাত ১০টার দিকে রাতের খাবার খেয়ে বাসা থেকে বের হয়। পরবর্তীতে মনিরের গ্যারেজ থেকে অটোরিক্সা নিয়ে যায়। সকালে বাসায় ফিরে না আসায় গ্যারেজে গিয়ে জানতে পারি হাসান অটোরিক্সা নিয়ে বের হয়ে আর ফিরে আসেনি। শুক্রবার সারাদিন পেরিয়ে শনিবার সকালেও বাসায় ফিরে না আসায় এবং খোঁজ না পাওয়ায় থানায় সাধারণ ডায়েরী করার জন্য আসি। থানায় এসে লাশ উদ্ধারের ঘটনা জানতে পারি এবং ছবি দেখে সনাক্ত করি আমার স্বামীর লাশ।

 

শুক্রবার (৪ নভেম্বর) সকাল আটটার দিকে ফতুল্লা মডেল থানার পিলকুনী মোল্লাবাড়ী মসজিদের সামনের ডোবা থেকে নিহত যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

 

পুলিশের ধারণা, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে দুর্বৃত্তরা তাঁকে হত্যা করে ডোবায় ফেলে রেখে গেছে। নিহতের পরনে জিন্স প্যান্ট ও গায়ে নীল রংয়ের  ফতুয়া রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

 

ফতুল্লা মডেল থানার উপপরিদর্শক শাহাদাত হোসেন জানায়, লাশ উদ্ধারের ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে  হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। নিহতের স্ত্রী শনিবার সকালে থানায় নিখোঁজ ডায়েরী করতে এসে ছবি দেখে নিহত যুবকের লাশ শনাক্ত করেন। নিহত যুবকে নাম মোঃ হোসেন। সে অটোরিক্সা চালক ছিলেন। ধারনা করা হচ্ছে তাকে হত্যা করে  অটোরিক্সা ছিনিয়ে গেছে দূবৃত্তরা।আইনি পক্রিয়া শেষে নিহতের লাশ তার পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হবে বলে তিনি জানান।