ভারসাম্যপূর্ণ সমাজ বিনির্মাণে ইসলামের বিকল্প নাই

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-এর কেন্দ্রীয় সহ-প্রশিক্ষণ সম্পাদক মুফতি দেলোয়ার হোসাইন সাকী বলেন, যে কোন রাষ্ট্রের প্রধান বৈশিষ্ট্য হল স্থিতিশীল ও ভারসাম্যপূর্ণ হওয়া।

এই দুইগুন না থাকলে রাষ্ট্রের বিকাশ, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধি থমকে যায়। রাষ্ট্রের উন্নয়ন ব্যাহত হয়। বাংলাদেশের দুর্ভাগ্য যে, স্বাধীনতার ৫০ বছর পরেও বাংলাদেশ স্থিতিশীল না; ভারসাম্যপূর্ণ না। যার খেসারত দিচ্ছে রক্তে কেনা বাংলাদেশের কোটি জনতা।


অন্যদিকে ভারসাম্যহীনতা সর্বত্র। অর্থনীতিতে একদিকে আকাশচুম্বি জিডিপি অন্যদিকে টিসিবি’র পণ্য কিনতে ট্রাকের পেছনে ছুটছে ক্ষুধাতুর মানুষ। একদিকে কোটিপতির সংখ্যা বাড়ছে অন্যদিকে ৪৪ শতাংশ মানুষ খাবারের বাজেট কমাতে বাধ্য হচ্ছে।

ক্ষমতা সংশ্লিষ্টরা রাষ্ট্রের সম্পদ চুরি করে বিদেশে পাচার করছে অন্যদিকে বিরোধী রাজনৈতিক নেতা-কর্মীদের তুচ্ছ কারনে জেলে পাঠানো হচ্ছে। ক্ষমতা কুক্ষিগত করতে যা খুশি করছে আর সাধারণ নাগরিকরা কথা বলার অধিকার থেকেও বঞ্চিত হচ্ছে।

আজ ২০ রমজান (২২ এপ্রিল) শুক্রবার ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি মুহা. নুর হোসেনর সভাপতিত্বে বিশিষ্টজনদের সম্মানে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথা বলেন।

সেক্রেটারি সুলতান মাহমুদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সাবেক নাসিক মেয়র প্রার্থী মুফতি মাসুম বিল্লাহ, দ্বীনি সংগঠন নারায়ণগঞ্জ জেলার সদর মাও. মুজিবুর রহমান, নগর সহ-সভাপতি শাহাদাত হোসেন খান, গিয়াসুদ্দিন মুহাম্মাদ খালিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক মাও. শামসুল আলম, প্রচার ও দাওয়াহ বিলাল খান, অর্থ ও প্রকাশনা সম্পাদক মুহা. আমির হোসেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানার সভাপতি বিল্লাল হোসেন, শহর শাখার সেক্রেটারি আ. রহমান রোমন প্রধান, বন্দর থানার সভাপতি আবুল হাশেম, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি আলহাজ্ব হাসান আলী, ইসলামী যুব আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি ডা. মিজানুর রহমান, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন নারায়ণগঞ্জ মহানগর সভাপতি মেহেদী হাসান প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

 তিনি আরও বলেন, এই অস্থিতিশীলতার মূল কারণ ইসলামী অনুশাসন মান্য না করা। ব্যক্তি জীবনে ইসলামের নির্দেশনা মেনে লোভ-লালসা, হিংসা-বিদ্বেষ, পরশ্রীকাতরতা, ক্ষমতার মোহ, দুনিয়ার মোহ দূর করে তাকওয়া, খোদাভীতি, কল্যাণকামিতা, অল্পে তুষ্টি অর্জন করতে পারলে এই পরিস্থিতির দৃশ্যমান উন্নতি হতো।

সভাপতি নুর হোসেন বলেন, ইসরাইল মানবতার জন্য ক্যান্সার তুল্য। পবিত্র মাহে রমজানে আল-আকসায় নিরস্ত্র মুসলিমদের ওপর হামলা মানবতাবিরোধী অপরাধ। সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে মুসলিম বিশ্বকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।