সর্বত্রই প্রশংসায় ভাসছেন কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদ

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক): বন্দরে এসএসসি পরিক্ষার্থীদের সুবিধার্থে যানযট মুক্ত ধারাবাহিক কর্মসূচিতে সর্বত্রই প্রশংসায় ভাসছেন ২২নং ওয়ার্ড তরুণ কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খান মাসুদ।

জনপ্রতিনিধি না হয়েও একের পর এক জনকল্যাণমুখী কাজ করে সর্বত্রই আলোচনায় রয়েছেন তরুণ এই সমাজ সেবক নাসিক ২২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর পদপ্রার্থী খান মাসুদ।

মহামারি করোনাকালীন সময় রাতের আঁধারে কর্মহীন ঘরবন্দী মানুষের দ্বারেদ্বারে গিয়ে ত্রান সামগ্রী পৌঁছে দিয়ে ইতিমধ্যেই তিনি মানবতার ফেরিওয়ালা হিসেবে খ্যাত লাভ করেছেন। তাছাড়াও তিনি নিঃস্বার্থভাবে সামাজিক বিচার শালিসিসহ প্রতিদিনই মানুষের কল্যাণে কোন না কাজে মানব সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। খান মাসুদের এমন মহতি উদ্যোগ ও মানব সেবামূলক কার্যক্রমে আওয়ামীলীগের সুনাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

এমন জনসেবা মূলুক কার্যক্রমগুলো আগামী সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে কাউন্সিলর প্রার্থী খান মাসুদের জন্য একটা বিশাল পজেটিভ ভূমিকা রাখবে বলে মনে করছেন সমাজের সচেতন মহল।
এসএসসি পরিক্ষার্থীদের যান চলাচল সুবিধার্থে পূর্ব নির্ধারিত যানযট মুক্ত ধারাবাহিক কর্মসূচি’র ৫’ম দিনেও সড়কে দাঁড়িয়ে ট্রাফিকের ভূমিকায় দায়িত্বরত ছিলেন খান মাসুদের স্বেচ্ছাসেবী কর্মীরা।

সোমবার (২২ নভেম্বর) সকাল সাড়ে আটায় বন্দর গার্লস স্কুল এন্ড কলেজ ও শাহী মসজিদ এলাকাস্থ সিকদার আবদুল মালেক উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন সড়কে দুটি টিম এ কর্মসূচি পালন করেন।

৫’ম দিনের যানযট মুক্ত কর্মসূচিতে স্বেচ্ছাসেবী কর্মী হিসেবে সড়কে ট্রাফিকের ভূমিকায় ছিলেন, বন্দর থানা যুবলীগ নেতা মোঃ ডালিম, হোসেন প্রধান, রাজু আহমেদ, মোকলেছ, নাছির, উজ্জ্বল, রানা, হৃদয়, রিয়াদ, মাসুদ, রাব্বি, পারভেজ, জাহিদ, ইমন, নাঈম, সৌরভ, ইমু, রমজান, রিফাত প্রমুখ।