অপহরনের ৩৬ ঘন্টার মধ্যে ভিকটিম উদ্ধারসহ অপহরনকারী ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ
ঢাকা মহানগরীর পল্লবী থানাধীন এলাকা হতে অপহরনের ৩৬ ঘন্টার মধ্যে ভিকটিম উদ্ধারসহ অপহরনকারী ০৪ জনকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৪।
এলিট ফোর্স হিসেবে র‌্যাব আত্মপ্রকাশের সূচনালগ্ন থেকেই আইনের শাসন সমুন্নত রেখে দেশের সকল নাগরিকের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত করার লক্ষে অপরাধ চিহ্নিতকরণ, প্রতিরোধ, শান্তি ও জনশৃংখলা রক্ষায় কাজ করে আসছে। সাম্প্রতিককালে প্রতারণামূলক ফাঁদে ফেলে বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরী তরুনী মেয়েদের মুক্তিপন আদায়ের উদ্দেশ্যে অপহরন করে আসছে কয়েকটি সংঘবদ্ধ অপহরণকারী সিন্ডিকেট। জঙ্গীবাদ, খুন, ধর্ষণ, নাশকতা এবং অন্যান্য অপরাধের পাশাপাশি এসব ঘৃণিত অপহরনকারী চক্রের সাথে সম্পৃক্ত অপরাধীদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য র‌্যাব সদা সচেষ্ট।
এরই ধারাবাহিকতায় র‌্যাব-৪ এর একটি আভিযানিক দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ইং সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১ টার সময় ঢাকা মহানগরীর পল্লবী থানাধীন কালসী এলাকা হতে ধৃত মোঃ সোহেল (১৮) এর বাসায় অভিযান পরিচালনা করে ০১ জন ভিকটিম উদ্ধারসহ ০৪ জন অপহরনকারীকে গ্রেফতার করতে সমর্থ হয়।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন, মোঃ ফয়সাল (১৯), জেলা- মাদারীপুর, মোঃ সোহেল (১৮), জেলা- শরিয়তপুর, মোঃ রিয়াজ (১৯), জেলা- কিশোরগঞ্জ ও মোঃ নুরু হোসেন ডালী (৪০), জেলা- মাদারীপুর।
অপরাধের কৌশল ও বিস্তারিতঃ
সকলের উপস্থিতিতে ধৃত আসামীদেরকে জিজ্ঞাসাবাদে স্বীকার করে যে, মোঃ ফয়সাল (১৯) মোঃ নুর হোসেন ডালী (৪০) এর ছেলে। তার পিতা ধৃত ০৪ নং আসামী আর্থিকভাবে অস্বচ্ছল। বাদীর নাবালিকা কন্যা ভিকটিম এর সহিত তার ছেলের সম্পর্কের বিষয়টি জানার পর থেকেই বিভিন্ন সময়ে এই বলে প্রলুব্ধ করতো যে, ধৃত আসামী মোঃ ফয়সাল (১৯) যদি বাদীর নাবালিকা কন্যাকে কোন ভাবে বিয়ে করতে পারে তাহলে সে ভিকটিমের পিতার সকল সম্পত্তির মালিক হতে পারবে। এরই প্রেক্ষিতে আসামীরা পরষ্পরের যোগসাজসে গত রবিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) রাতে মিরপুর মডেল থানাধীন পীরেরবাগ এলাকা  থেকে বাদীর নাবালিকা কন্যাকে ফুসলিয়ে একটি অজ্ঞাত নম্বরের সিএনজিতে উঠিয়ে অপহরন করে নিয়া যায়। জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়  অপহরনের পর হতে ফয়সাল একাধিকবার ভিকটিম’কে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে জোরপূর্বক ধর্ষন করেছে এবং তাকে বিয়ে না করলে গলা টিপে মেরে ফেলবে বলে হুমকি দেয়।
গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয়ের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন এবং এই ধরনের অপহরনকারীদের বিরুদ্ধে র‌্যাবের জোড়ালো অভিযান অব্যাহত থাকবে।