কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের উদ্যােগে মতবিনিময় সভা

সকাল নারায়ণগঞ্জ:

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

কলাগাছিয়া ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের উদ্যােগে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। 
শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) বিকেল ৪ টায় শুভগরদী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গনে এই আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। 

৭,৮,৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ ইয়ানুর মিয়া’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, আলহাজ্ব কাজিম উদ্দিন প্রাধান সাধারণ সম্পাদক বন্দর উপজেলা আওয়ামীলীগ। 

এ সময় তিনি প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে বলেন, এখনো আমাদের প্রতিটি ওয়ার্ডে চারটি করে গ্রাম আছে আমরা সেই গ্রাম কমিটিগুলো করবো এই গ্রাম কমিটিগুলো কেন করব কি কারণে করব।
আমাদের যে ওয়ার্ড কমিটি গুলো আছে আমরা যে নেতৃবৃন্দ রয়েছি আর গ্রাম কমিটি হলে ওই গ্রামের লোকেরা কিন্তু এই কমিটিতে যারা আছে এবং কোন বাড়িতে কতজন লোক আছে তারা কি অবস্থায় আছে এবং গরিব দুঃখী মানুষ কারা আছে সেগুলো জানতে পারবো। এই সমস্ত চিন্তাভাবনা করে আমরা গ্রাম কমিটি করার উদ্যোগ নিয়েছি আমরা আশা করি এই গ্রাম কমিটি গুলি আমাদের সম্পূর্ণভাবে আমরা প্রত্যেকটি গ্রামের লোকজনকে চিনতে পারব জানতে পারব এবং তাদের সুখে-দুঃখে তাদের পাশে থাকতে পারবো।

আমরা আওয়ামী লীগ করি আমরা বঙ্গবন্ধু আদর্শের সৈনিক এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শে বিশ্বাসী আমাদের মার্কা নৌকা এই নৌকার কোন কর্মী যদি বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক হয়ে থাকে জননেত্রী শেখ হাসিনার আদর্শকে বিশ্বাস করে থাকে তারা যদি তৃণমূল পর্যায়ে নেতৃবৃন্দ যদি তাদের সমর্থন করে তাহলে উনিও নৌকা মার্কা পাবেন। আমি বন্দর উপজেলা সাধারণ সম্পাদক হওয়ার পরেও এই পাঁচটি ইউনিয়ন আমি ঘুরেছি আমি অনেক নেতৃবৃন্দের কাছে গিয়েছি অনেক অসহায় মা বোনের কাছে গিয়েছি। মহামারী করোনা’র সময় নিজের জীবন বাজি রেখে গরীব দুঃখী মানুষের পাশে আমি আমার স্বার্থ অনুযায়ী আমি তাদের পাশে দাঁড়িয়েছি আমাদের জননেত্রী শেখ হাসিনা যে নির্দেশ দিয়েছেন আমরা সে নির্দেশ অক্ষরে অক্ষরে পালন করেছি।

আজ আমাদের ৫ আসনের সংসদ সদস্য এ.কে.এম সেলিম ওসমান সেলিম ভাই মহামারী করোনার সময় যে অনুদান দিয়েছেন সেগুলো সম্পূর্ণ তার চেয়ারম্যান মেম্বারের মাধ্যমে জনগণের হাতে পৌঁছানোর চেষ্টা করেছেন আমি জানিনা আমার গরিব-দুঃখী মানুষ মা-বোনেরা তারা কতটুকু পেয়েছেন। আমাকে ভোট দিয়ে কিন্তু আমার এই কলাগাছিয়া ইউনিয়ন এর মানুষেরাই আমাকে নির্বাচিত করেছিল। তাহলে আমি যদি এখন নিজের আত্মীয় ছাড়া অন্য কাউকে না চিনার বান ধরি এটা কি ঠিক হবে কোন দিনি ঠিক হবে না।

এখন এই কলাগাছিয়ায় এগুলোই চলছে এগুলো আর হতে দেওয়া হবে না আমরা চাই আমার কলাগাছিয়া ইউনিয়ন এর মা-বোনেরা যায়া রয়েছে যারা সুখে দুঃখে সবসময় আমাদের পাশে থাকে এবং কলাগাছিয়া মান সম্মান বজায় রাখার চেষ্টা করে তাদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের প্রধান কাজ। তিনি আরও বলেন, সরকারের কাছ থেকে আনা লক্ষ লক্ষ কোটি কোটি টাকা আসছে সেগুলো কোথায় যাচ্ছে এগুলোর হিসাব দিতে হবে আমি জানি কার দৌড় কতটুকু। এ সব কথা বলে তিনি তার মন্তব্য শেষ করেন।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ভোলানাথ দাস সাধারণ সম্পাদক বন্দর থানা আওয়ামীলীগ, এ.কে.এম ইব্রাহিম কাশেম সাধারণ সম্পাদক কলাগাছিয়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ, রুহুল আমিন সভাপতি কলাগাছিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ, আশিক মাহমুদ সভাপতি কলাগাছিয়া ইউনিয়ন শ্রমিক লীগ, মোঃ লিটন সাধারণ সম্পাদক কলাগাছিয়া ইউনিয়ন ছাত্রলীগ প্রমূখ।