কাশীপুর খীল মার্কেট এলাকায় ৬ বছরের মেয়ে কে ধর্ষণের চেষ্টা

৬ বছরের মেয়ে কে ধর্ষণের চেষ্টা
৬ বছরের মেয়ে কে ধর্ষণের চেষ্টা (ছবি সকাল নারায়ানগঞ্জ)

কাশীপুর খীল মার্কেট এলাকায় ৬ বছরের মেয়ে কে ধর্ষণের চেষ্টাকারী হেলাল (৩৩) পিতা আলি আহমেদ কে পুলিশ এর হাতে তুলে দিয়েছে এলাকাবাসী,,,

নারায়ণগঞ্জ এ কাশীপুর খীল মার্কেট এলাকায়  ৬ বছর এর  এক মেয়ে  মদিনা হার্ডওয়্যার  স্টোর এ মিনিট কার্ড  কিনার জন্য আসে,তার পর দোকান মালিক হেলাল, মুখ চেপে দোকানের ভিতর নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে,,

পরে শিশুটি  কে ভয় ভীতি দেখিয়ে, বলে  তোর অন্য কেউ যদি জানে তো তোর  সমস্যা হইবো, মনে থাকবো, শিশুর মা আমাদের কে জানান, আরিফা  বাসায় গিয়ে মাকে ধরে বলে মা আমরা নানু বাড়ি চলে জাই,,,পরে মা বলে আগে বলো দেরি হলো কেন,,পরে আরিফা  বলে দোকানের বেটায় আমারে জোর করে গালে,মুখে,আরও অন্যান্য জায়গায় চুম্মা,দিসে,,,পেন্ট খুলে,,আরও অনেক কিছু,, পরে মেয়েকে নিয়ে দোকান এর মালিক হেলাল কে জিজ্ঞেস করলেই হেলাল মারধর করার জন্য এগিয়ে আসে,পরে মহিলা   কান্নাকাটি শুরু করে তা দেখে এলাকার বাসিন্দারা এগিয়ে এসে দেখে, আটক করে রাখে ফতুল্লা থানায় খবর পেয়ে (এস আই) মিজানুর রহমান, চলে আসে এক পর্যায়ে টাকা দিয়ে সব মিমাংসা করতে বলে,এতে এলাকার বাসিন্দারা হ্মিপ্ত হয়ে যায়,,কারণ এর আগেও হেলাল অন্যান্য শিশুদের সাথে একি আচরণ করার বিচার শালিসি  বসেছে,,আজকে আর চুপ হয়ে থাকা সম্ভব না, তাই হেলাল কে পুলিশ এর হাতে তুলে দেয় এলাকার বাসিন্দারাথানায় আসামি হেলাল এর পরিবার আরিফার মা-বাবাকে মোটা অংকের টাকা দিয়ে সব মিমাংসা করতে বলে,, তার পরিবার  আর আরিফার মা চায় বিচার এই নির্যাতনের প্রতিবাদে আমি  গরিব অসহায় তার পরেও এতো গুলো মানুষ আমার পাশে দাঁড়িয়ে আছে,,,

এই ব্যাপার এ  ফতুল্লা মডেল থানার ওসি তদন্ত হাসানুজ্জামান বলেন আমরা এই বিষয় গুলো খুব ভালো করে দেখছি ,আইনের জাল থেকে আসামি বের হতে পারবে না,,সুষ্টু তদন্তে সত্যতা নিশ্চিত করেই বিচার হবে, আপাতত মামলার প্রস্তুতি চলছে।