1. [email protected] : সকাল নারায়ণগঞ্জ : সকাল নারায়ণগঞ্জ
  2. [email protected] : skriaz30 :
  3. : wpcron20dc4723 :
বাসের সিরিয়াল নিয়ে দ্বন্দ্ব, গুলিবিদ্ধসহ আহত সাতজন - সকাল নারায়ণগঞ্জ
সোমবার, ১৫ জুলাই ২০২৪, ০৮:৪৪ অপরাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট
এরশাদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মুন্সিগঞ্জ জেলা জাপা’র মিলাদ , দোয়া ও খাবার বিতরন  রূপগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬ অপহরণকারী আটক  জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঠিকাদারদের সাথে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ”র মতবিনিময় সভা-সম্পন্ন  ফ‌টো সাংবা‌দিক ‌মোক্তা‌র হোসেনের মাতার ইন্তেকা‌লে আজ‌মেরী ওসমা‌নের গভীর শোক না’গঞ্জ জেলা ও মহানগর ঐক‌্য প‌রিষ‌দের কর্মী স‌ম্মেলন অনু‌ষ্ঠিত পূর্বাচলে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ রূপগঞ্জে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বিশেষ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধে শরণার্থী শিবিরে ভারতের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত সাকিব খানের গোপনাঙ্গ কেটে ফেললেন স্ত্রী  রূপগঞ্জে কৃষকের মাঝে বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ

বাসের সিরিয়াল নিয়ে দ্বন্দ্ব, গুলিবিদ্ধসহ আহত সাতজন

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ
  • আপডেট শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪
  • ৩৫ Time View

নাটোর জেলা বাস মালিক সমিতির বাসের সিরিয়াল দেওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে দফায় দফায় সংঘর্ষে একজন গুলিবিদ্ধসহ সাতজন আহত হয়েছেন। 

শুক্রবার রাতে শহরের বড়হরিশপুর বাস টার্মিনালের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ আরপি রোকেয়া পরিবহণ মালিকের ভাতিজা সুবেল (২৭) ও আহত সমিতির মাস্টার ধীরেন্দ্র নাথকে (৪৫) শনিবার ভোরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

জেলা বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও জেলা যুবলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি বাসিরুর রহমান খান চৌধুরী এহিয়া অভিযোগ করেন, জেলা বাস মালিক সমিতির প্রতি সদস্যের সর্বোচ্চ ১৫টি করে বাস রাস্তায় নামানোর অনুমতি রয়েছে। 

সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও রাজকীয় পরিবহণের মালিক মজিবর রহমান এ নিয়ম অমান্য করে ২০টি বাস নামান। তার ঢাকাগামী বাসের সিরিয়াল দেওয়া নিয়ে বিরোধের জেরে ম্যানেজার খোকার নেতৃত্বে মধ্যরাতে ১০-১২ জন সন্ত্রাসী বাস টার্মিনাল এলাকায় সমিতির মাস্টার ধীরেন্দ্র নাথকে কুপিয়ে আহত করে। 

এ সময় বাধা দিতে গেলে হামলাকারীরা আরপি রোকেয়া পরিবহণের মালিকের ভাতিজা সুবেলকে গুলি করে চলে যায়। 

তবে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দুপক্ষের সংঘর্ষে মোট সাতজন আহত হয়েছেন। আহত অন্যরা হলেন মো. আবুল হোসেন (৪৫), কিরণ হোসেন (৫০), মো. সুরুজ মিয়া (৪২), মো. খোকা (২৭) ও মো. মোমিনুল ইসলাম হিমেল (২৮)। 

এদিকে সংঘর্ষের পর সমিতির তাৎক্ষণিক সিদ্ধান্তে মধ্যরাতেই জেলা সমিতির বাস চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। হামলাকারীদের গ্রেফতার না করলে বাস বন্ধ রেখে আরও কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে বলে জানান বাস মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক। 

এ খবর পেয়ে শনিবার ভোর ৩টার দিকে স্থানীয় সংসদ-সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুল ও পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি শান্ত করেন এবং বাস চলাচল স্বাভাবিক করেন। 

সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান বলেন, শুক্রবার বিকালে তার মালিকানাধীন রাজকীয় বাস, সমিতির বর্তমান নেতারা কাউন্টারে আটকে রাখলে তিনি বিষয়টি প্রশাসনকে জানান। সংঘর্ষের বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না। তার কোনো লোকজন এই সংঘর্ষে জড়িত ছিল না।

শনিবার দুপুরে এ বিষয়ে আহত কিরণের বাবা ১২ জনের বিরুদ্ধে নাটোর থানায় মামলা করেছেন।  

নাটোর থানার ওসি মিজানুর রহমান জানান, ঘটনার পর বাস টার্মিনাল এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে। এর সঙ্গে জড়িতদেরকে চিহ্নিত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

আরও সংবাদ
© ২০২৩ | সকল স্বত্ব সকাল নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক সংরক্ষিত
DEVELOPED BY RIAZUL