1. [email protected] : সকাল নারায়ণগঞ্জ : সকাল নারায়ণগঞ্জ
  2. [email protected] : skriaz30 :
  3. : wpcron20dc4723 :
অনেকেই অনেক কিছু করেন, আমরা সব দেখি - শামীম ওসমান - সকাল নারায়ণগঞ্জ
শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ০৬:৪৯ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ আপডেট
বাবার জন্য নারায়ণগঞ্জ এর মানুষের কাছে দোয়া চাইলেন অয়ন ওসমান ছাত্রলীগ সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশে আছে অয়ন ওসমান এরশাদের ৫ম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ্যে মুন্সিগঞ্জ জেলা জাপা’র মিলাদ , দোয়া ও খাবার বিতরন  রূপগঞ্জে পুলিশের অভিযানে ৬ অপহরণকারী আটক  জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের ঠিকাদারদের সাথে লিরা গ্রুপ অব ইন্ডাস্ট্রিজ”র মতবিনিময় সভা-সম্পন্ন  ফ‌টো সাংবা‌দিক ‌মোক্তা‌র হোসেনের মাতার ইন্তেকা‌লে আজ‌মেরী ওসমা‌নের গভীর শোক না’গঞ্জ জেলা ও মহানগর ঐক‌্য প‌রিষ‌দের কর্মী স‌ম্মেলন অনু‌ষ্ঠিত পূর্বাচলে শতাধিক অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ রূপগঞ্জে বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উপলক্ষে উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগের বিশেষ কার্যক্রম অনুষ্ঠিত মুক্তিযুদ্ধে শরণার্থী শিবিরে ভারতের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

অনেকেই অনেক কিছু করেন, আমরা সব দেখি – শামীম ওসমান

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ
  • আপডেট শনিবার, ২৭ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ১৫০ Time View

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

আমন্ত্রণে সাড়া না দেওয়ায় স্থানীয় প্রশাসনের সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, আমার রাজনৈতিক জীবনে এত বিব্রত কোনোদিন হইনি। আমার ছোট বোন আইভীর মতো আমি সরাসরি প্রশাসনকে কিছু বলতে পারবো না। উনি বলে ফেলেন। কিছুদিন আগে বলেছেন, প্রশাসন ওখান (ফুটপাত) থেকে টাকা কামায়।

শনিবার (২৭ জানুয়ারি) বিকেলে নারায়ণগঞ্জের ওসমানী পৌর স্টেডিয়ামে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিদের নিয়ে আয়োজিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। 

শামীম ওসমান বলেন, মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, ইভটিজিং ও ভূমিদস্যুতা বন্ধে আজকের এই আয়োজন। এজন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব আমাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। স্থানীয় জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপারকে আমি আমন্ত্রণ জানিয়েছিলাম। এরপরও তারা কেন আসেননি, তা সংসদের প্রথম অধিবেশনেই তুলবো এবং সংসদ নেতার কাছে জানতে চাইব। মনে রাখবেন, আমার নাম শামীম ওসমান। আমি কারও দয়ায় চলি না। 

শামীম ওসমান বলেন, অনেকেই অনেক কিছু করেন, আমরা সব দেখি। নারায়ণগঞ্জের টাকা ধরা পড়ে যাত্রাবাড়ীতে আর কেস দেখান ফতুল্লাতে। সাংবাদিকরা আমাদের অনেক কিছু জানান। আমাদের নারায়ণগঞ্জ আমরাই ঠিক করবো। এখানে উপস্থিত অনেকেই আমাকে জিজ্ঞেস করেছেন যে ডিসি, এসপি কেন আসেননি। রাজনৈতিক জীবনের এই ৪৫ বছরে আজকের মতো এত বিব্রত হইনি। 

জেলা প্রশাসককে বারবার আমন্ত্রণ জানানোর কথা উল্লেখ করে এই সংসদ সদস্য বলেন, নাসিক মেয়রের (ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী) মতো বলতে পারবো না যে প্রশাসন টাকা কামাতে আসে। জেলা প্রশাসককে বারবার দাওয়াত দিয়েছি। তিনিসহ প্রশাসনের অন্যরা কেন আসেননি, জীবিত থাকলে এই প্রশ্ন সংসদে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জিজ্ঞেস করব। এটা আওয়ামী লীগের সরকার, সরকারের আওয়ামী লীগ না। রাজপথ থেকে সৃষ্টি হয়েছি, রাজপথেই শেষ হব।  মাথা নোয়াবার মানুষ নই আমি। প্রতিষ্ঠা হতে যাওয়া সংগঠন ‘প্রত্যাশা’র সাড়ে চার লাখ লোক রাস্তায় নেমে যদি বলে আমরা নারায়ণগঞ্জে অমুককে চাই না, তাহলে কিন্তু কেউ থাকতে পারবেন না।

শামীম ওসমান বলেন, আমাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জন্য নারায়ণগঞ্জ এসে অনেকেই সুযোগ নিয়ে চলে যাচ্ছে। প্রেস ক্লাবে গোলটেবিল বৈঠক আয়োজনের কথা বলেছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ। আমি অবশ্যই থাকবো সেখানে। আমার ছোট বোন মেয়র আইভীসহ অন্যদেরও বলতে চাই, তারাও যেন আসেন। আগামী প্রজন্মের জন্য সুন্দর নারায়ণগঞ্জ রেখে যেতে চাই। মৃত্যুর সময় আমার যাতে ভয় না লাগে। 

তিনি আরও বলেন, আপনাদের দোয়ায় আমরা নিষিদ্ধপল্লী উচ্ছেদ করেছি। অনেকে ভেবেছিলেন এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য আছে। পবিত্র কাবা শরিফ ছ্ুঁয়ে এবার আমি ওয়াদা করেছি মাদক, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি, ভূমিদস্যুতা ও ইভটিজিং বন্ধ করব। মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, আলেম, জনপ্রতিনিধি, আইনজীবী, ছাত্রছাত্রীরা এসেছেন এখানে। আমরা একটা সুন্দর বাংলাদেশ চাই, একটা সুন্দর নারায়ণগঞ্জ চাই। যখন আমরা শুনি একটা মেয়ের সংসার ভেঙে যাচ্ছে স্বামীর মাদকের কারণে, একটা ১৮ বছরের ছেলে রাত ১২টায় বের হতে পারলেও মেয়েরা পারে না কেন? এই রাস্তায় কি নরপশু থাকে? জীবজন্তু থাকে? আমি জানি আজকের পর থেকে মাদক বিক্রির টাকা দিয়ে বিভিন্নভাবে আমাদের বিভক্ত করার চেষ্টা করবে। 

মাদক বিক্রেতাদের ইবলিশ আখ্যা দিয়ে তিনি বলেন, ওরা অনেক শক্তিশালী। ওদেরকে দুর্বল ভাববেন না। আমি কাল নাও থাকতে পারি। অনুরোধ থাকবে আপনারা বিষয়টি চলমান রাখবেন। ছিঁচকে সন্ত্রাসীদের কারণে ব্যবসায়ীরা ব্যবসা করতে পারেন না। মাদক থেকেই আসে সন্ত্রাস, কিশোর গ্যাং। ৯০টি ওয়ার্ডের সাংবাদিক, আলেম, নারী, শিক্ষকদের নিয়ে একটা করে কমিটি করা হবে। যে মাদক খায় সে অসুস্থ, যে বেচে সে ইবলিশ শয়তান। ২৬ মার্চের আগে এক হাজার করে ভালো মানুষ চাই। এতে ৯০টি ওয়ার্ডে ৯০ হাজার লোক। প্রতিজনের সঙ্গে পরিবারের ৫জন সদস্য যুক্ত হলে সাড়ে ৪ লাখ লোক হয়। লোক আরও বাড়বে। আর এই সাড়ে লাখ লোক যখন একসঙ্গে অনুষ্ঠান করবে। যদি বলে  আমরা এখানে কাউকে চাই না। আমাদের নারায়ণগঞ্জ আমরাই ঠিক করবো। তখন কি করবেন? আগের মতো বক্তব্য দিতে চাই না। বয়স হয়েছে। ৬২ বছর বয়সের বক্তব্য দিলাম। ২৬ বছরের বক্তব্যে নিয়েন না। সাবধান।

তিনি আরও বলেন, আলেমরা অন্তত জুম্মার নামাজের খুদবার আগে মাদকের বিরুদ্ধে দুই মিনিট কথা বলবেন, শিক্ষকেরা ক্লাস শুরু করার আগে দুইমিনিট কথা বলবেন। সবচেয়ে বেশি সহযোগিতা চাই সাংবাদিকদের কাছে। তাদের মধ্যেও ভালো মন্দ আছে। যারা মেইনস্ট্রিম সাংবাদিক তারা কখনোই মাদককে সমর্থন করবে না। এরা সবাই চাইলে জেলায় মাদক, সন্ত্রাস থাকবে না। আমরা মেডিকেল ক্যাম্প করবো ঢাকা থেকে বড় বড় চিকিৎসক নিয়ে এসে। 

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাইয়ের সভাপতিত্বে সভায় আরও বক্তব্য রাখেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু হাসনাত মো. শহিদ বাদল, মহানগর আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহসভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চন্দন শীল,  নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট খোকন সাহা, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আরিফ আলম দিপু, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জীবন, নারায়ণগঞ্জ জেলা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আব্দুস সালাম, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি হাবিবুর রহমান বাদল, নারায়ণগঞ্জ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি শংকর কুমার, নারায়ণগঞ্জ আদালতের পিপি বুলবুল আহমেদ, জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি হাসান ফেরদৌস জুয়েল,  আহলে সুন্নাত আল জামাতের মাওলানা এহতেশামুল হক প্রমুখ। উপস্থিত ছিলেন, বিভিন্ন উপজেলা ও ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান, নাসিকের কাউন্সিলর, বিভিন্ন রাজনৈতিক, ব্যবসায়িক, সামাজিক, চিকিৎসক, শিক্ষক সংগঠনের নেতৃবৃন্দসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার কয়েক হাজার মানুষ।

আরও সংবাদ
© ২০২৩ | সকল স্বত্ব সকাল নারায়ণগঞ্জ কর্তৃক সংরক্ষিত
DEVELOPED BY RIAZUL