আড়াইহাজারে হত্যার চেষ্টা মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুই আসামীকে গ্রেফতার

  • সকাল নারায়ণগঞ্জ

 

নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াইহাজার থানাধীন বালিয়াপাড়া এলাকায় ৭ নভেম্বর দিনগত রাতে গোপন সূত্রে প্রাপ্ত তথ্যের ভিত্তিতে অভিযান পরিচালনা করে সাব্বির হোসেনকে (২৬) হত্যার চেষ্টা মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যে দুই আসামীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১ এর একটি টিম।

 

গ্রেফতারকৃতরা হলো বালিয়াপাড়া এলাকার মৃত আলমাছ মিয়ার ছেলে মোঃ মোক্তার হোসেন (৩৪) এবং মোঃ শাহাদুল্লাহ (৪৫)।

 

৮ নভেম্বর বিকেলে র‌্যাব-১১ এর সহকারী পরিচালক ও মিডিয়া অফিসার এএসপি মোঃ রিজওয়ান সাঈদ জিকু এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীদ্বয় এবং এজাহারনামীয় অন্যান্য আসামীরা সন্ত্রাসী, ত্রাস সৃষ্টিকারী এবং এলাকায় প্রভাব বিস্তারকারী। ভিকটিম তাদের এরুপ সন্ত্রাসী কার্যক্রমে বাধা দিলে আসামী মোঃ মোক্তার হোসেন এবং মোঃ শাহাদুল্লাহসহ তার অন্যান্য সহযোগীরা পরস্পর যোগসাজসে গত ৬ নভেম্বর আড়াইহাজার থানাধীন বালিয়াপাড়া বাজারস্থ আল-মামুন এর ফার্মেসীর সামনে বে-আইনী জনতাবদ্ধে ভিকটিম সাব্বির হোসেনকে (২৬) দেশীয় অস্ত্র দিয়ে নৃশংসভাবে কুপিয়ে গুরুতর জখম করে।

 

এই পাশবিক ও নৃশংস ঘটনাটি বিভিন্ন পত্র পত্রিকা ও মিডিয়ায় প্রকাশিত হলে নারায়ণগঞ্জসহ সারাদেশে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। উক্ত ঘটনায় ভিকটিমের মা দিপালী বাদী হয়ে নারায়ণগঞ্জ জেলার আড়াই হাজার থানায় একটি হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের (নং ১১) করেন।

 

উক্ত ঘটনার পর থেকে এজাহারনামীয় পলাতক আসামীরা কৌশলে আত্মগোপন করে। এরই প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ এর একটি চৌকস গোয়েন্দা দল হত্যার চেষ্টা মামলার এজাহারভূক্ত পলাতক আসামীদের আইনের আওতায় নিয়ে আসার জন্য গোয়েন্দা অনুসন্ধান শুরু করে এবং মামলা রুজু হওয়ার ২৪ ঘন্টার মধ্যে মোঃ মোক্তার হোসেন ও মোঃ শাহাদুল্লাহকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়।

 

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত আসামীরা বর্ণিত ঘটনার সাথে সংশ্লিষ্টতার কথা স্বীকার করে। অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতারের জন্য র‌্যাব-১১ এর অভিযান অব্যাহত আছে।

 

পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য গ্রেফতারকৃত আসামীদের আড়াইহাজার থানার অত্র মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তার নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।