তল্লার জিল্লু বেকারীতে অভিযান: ২লাখ টাকা জরিমানাসহ একজনের জেল

grafter
তল্লার জিল্লু বেকারীতে অভিযান: ২লাখ টাকা জরিমানাসহ একজনের জেল

ফতুল্লার তল্লা চেয়ারম্যান বাড়ী এলাকায় অস্বাস্থ্যক ও নোংরা পরিবেশে পণ্য তৈরি করার অভিযোগে জিল্লু বেকারীর চারজনকে ৫০হাজার টাকা করে ২ লাখ টাকা জরিমানাসহ একজনকে ১ মাসের জেল দিয়েছেন ভ্রাম্যমান আদালত।

সোমবার (৭ অক্টোবর) বিকেলে অভিযান পরিচালনা শেষে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেনের নেতৃত্বাধিন ভ্রাম্যমান আদালত ওই জরিমানা ধার্য করেন।

জরিমানায় দন্ডিত ব্যাক্তিরা হলেন, বেকারীর মালিক নাইমের বড় ভাই আলমগীর, তার ছোট ভাই জিল্লু, বেকারির কর্মচারি মোঃ ওমর ফারুক ও মোঃ সোহরাব। এদের মধ্যে আলমগীরকে জরিমানার পাশাপাশি এক মাসের জেল দেওয়া হয়েছে। এসময় বেকারীর মালিক নাইম পলাতক ছিলেন।

অভিযান শেষে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জাহাঙ্গীর হোসেন সাংবাদিকদের জানান, আমরা তথ্যের ভিত্তিতে জানতে পারি এখানে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এবং বিষাক্ত প্রক্রিয়ায় খাদ্যপণ্য তৈরি হচ্ছে। এখানে যে বেকারির আইটেম কেক,মিষ্টি,রুটি, বিস্কুট সব আইটেমগুলো অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে এবং বিষাক্ত প্রক্রিয়ায় তৈরি করছে। আমরা এখানে এসে দেখতে পারি তারা যে ময়াদাটা ব্যবহার করছিলো তাতে পোকা ছিলো এবং এখানে প্লাস্টিকের গুড়ো পাই যা তারা নারিকেলের গুড়ো হিসেবে ব্যবহার করছে। এছাড়াও আমরা এখানে ক্যামিকেল পাই যা মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর তা দিয়ে বিষাক্ত প্রক্রিয়ায় খাদ্য পণ্য তৈরি করছিলো।