প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে “শাহজাহান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড” এর মালিক ও পরিচালক আব্দুল মোতালেবকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১০

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

প্রতারণা ও অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে “শাহজাহান মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড” এর মালিক ও পরিচালক আব্দুল মোতালেবকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।
গত ১৫ সেপ্টেম্বর আনুমানিক রাত ১১টা ১৫ মিনিটের সময় র‌্যাব-১০ এর একটি আভিযানিক দল রাজধানী ঢাকার শাহজাহানপুর থানাধীন ১২২/৭ উত্তর শাহজাহানপুর এলাকায় একটি অভিযান পরিচালনা করে সাধারণ মানুষের নিকট টাকা সঞ্চয়ের প্রতিশ্রæতি দিয়ে মোটা অংকের টাকা আত্মোসাৎকারী প্রতিষ্ঠান “শাহজাহানপুর মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড” এর মালিক ও পরিচালক মোঃ আব্দুল মোতালেব (৫৪)কে গ্রেফতার করে।
এসময় তার কাছ থেকে ১৫০টি বিভিন্ন ধরনের সঞ্চয় বই, ০৫টি ফাইল, ১২টি অফিস রেজিষ্টার, ১০০ পাতা বিশেষ বিজ্ঞপ্তি, ০৩টি মোবাইল ফোন ও নগদ- ১,২৩৫/- (এক হাজার দুইশত পয়ত্রিশ) টাকা জব্দ করা হয়।
মোঃ আব্দুল মোতালেব (৫৪) শাহজাহানপুর থানাধীন উত্তর শাহজাহানপুর এলাকার বাসিন্দা। তার বাবা একজন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী ছিলেন। আব্দুল মোতালেব ২০০৭ সালে “শাহজাহানপুর মাল্টিপারপাস কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড” নামে একটি প্রতিষ্ঠান চালু করেন এবং দৈনিক কিস্তি, মাসিক কিস্তি ও এফডিআর এর মাধ্যমে টাকা জমা করার বিনিময়ে অধিক মুনাফার প্রলোভন দেখিয়ে সাধারণ মানুষকে এই প্রতিষ্ঠানে টাকা জমা রাখতে উৎসাহিত করেন।
ভুক্তভোগী গ্রাহকরা জানান, মোঃ আব্দুল মোতালেব শুরুর পর কয়েক বছর গ্রাহকদের সাথে লেনদেন স্বাভাবিক রাখেন। কিন্তু বিগত ২ বছর ধরে গ্রাহকদের টাকা পরিশোধে তালবাহনা শুরু করে প্রতিষ্ঠানটি। এরপর তাদের অফিসের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। পাশাপাশি আত্মগোপনে চলে যায় মোঃ আব্দুল মোতালেব ও তার অন্যান্য সহযোগীরা আর গ্রাহকরা ঘুরতে থাকেন তাদের দ্বারে দ্বারে। ভুক্তভোগী নি¤œ ও নি¤œমধ্যবিত্ত পরিবারগুলো সর্বস্ব হারিয়ে তাদের জীবন এখন হুমকির সম্মুখীন। পক্ষান্তরে এধরনের বিভিন্ন প্রকার সুযোগ-সুবিধা দেখিয়ে ভুক্তভোগী রিকশাওয়ালা, ভ্যান চালক, চা দোকানদার, বিধবা ও স্বামী পরিত্যক্তা এমন কি ভিখারী/ভিখারিনীর কাছ থেকেও টাকা আত্মসাৎ করে হয়েছেন বিভিন্ন স্থানে ফ্লাট ও বাড়ির মালিক।