মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে বাসদের মিছিল ও সমাবেশ

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

চাল, তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম কমানো

এবং এলপিজি গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহারের দাবিতে

নারায়ণগঞ্জে বাসদের মিছিল ও সমাবেশ

চাল, ডাল, তেল, চিনিসহ নিত্যপণ্যের দাম কমানো এবং এলপিজি সিলিÐার গ্যাসের বর্ধিত মূল্য প্রত্যাহার ও বাসদ নেতৃবৃন্দের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ নারায়নগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে আজ বিকাল ৪ টায় নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশ শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল শহর প্রদক্ষিণ করে। বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ফোরামের সমন্বয়ক নিখিল দাসের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাসদ জেলা ফোরামের সদস্য আবু নাঈম খান বিপ্লব, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়নগঞ্জ জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, ফতুল্লা থানার বাসদ সমন্বয়ক এম এ মিল্টন।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সরকার দেশে এক ফ্যাসিবাদী সরকার কায়েম করেছে। বিরোধী মত পথকে দমন করার জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মতো কালো আইন তৈরি করেছে। গণবিরোধী শাসনের ফলে দেশে আজ চাল, ডাল, চিনি, তেলসহ নিত্যপণ্যের দাম উর্ধ্বমুখী।

সরকার বলছে চালের সংকট নেই, অথচ চালের দাম বেড়েই চলেছে। অসৎ সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদেও দৌরাত্ম্য সরকার নিয়ন্ত্রণ করতে ব্যর্থ হয়েছে। সাধারণ মানুষের জীবনে নাভিশ^াস উঠেছে। এমনিতেই করোনাকালে ৭০ ভাগ মানুষের আয় কমে গিয়েছে।

শুধু নিত্যপণ্য নয়, লুটেরা ব্যবসায়ীদের স্বার্থে সরকার এলপিজি সিলিন্ডার গ্যাসের দাম দফায় দফায় বৃদ্ধি করছে। স্বয়ং সরকারি সংস্থাই বলছে, বড় জাহাজে করে গ্যাস আনা গেলে সিলিন্ডার প্রতি ৩০০-৪০০ টাকা কম রাখা সম্ভব। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তা করছে না। শুধু তাই নয় সরকার দেশজ গ্যাস উৎপাদনের সুযোগ থাকার পরও শুধুমাত্র লুটেরাদের স্বার্থে বিদেশ থেকে গ্যাস আমদানি করছে। বিনাভোটের সরকারের জনগণের প্রতি কোন দায় নেই। ইতিমধ্যে পাটকল চিনিকল বন্ধ করে দিয়ে প্রায় ৬০ হাজার শ্রমিকের পেটে লাথি মেরেছে।

নেতৃবৃন্দ বাসদ সদর উপজেলা কার্যালয়ে হামলাকারী ঝুটসন্ত্রাসী সুমন ও জুয়াড়ি জাহাঙ্গীরের গ্রেফতার না হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং বাসদ নেতা আবু নাঈম খান বিপ্লব ও সেলিম মাহমুদের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের জোর দাবি জানান।

বার্তা প্রেরক
রুহুল আমিন সোহাগ