ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ-নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে

সকাল নারায়ণগঞ্জ:

আজ ১১ এপ্রিল রবিবার বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটি নারায়ণগঞ্জ জেলার সাবেক সদর মাও. ছানাউল্লাহ নূরী, তাঁর ছেলে মাও. আবু বকর, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন সোনারগাঁও থানার সাবেক সভাপতি রায়হান, ইসলামী যুব আন্দোলন-এর সদস্য মোঃ সাদ্দাম কে অন্যায়ভাবে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাই এবং অবিলম্বে তাদের মুক্তি দিতে হবে।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ এ দেশে নিবন্ধিত একটি রাজনৈতিক সংগঠন। যার নিবন্ধন নং- ০৩৪। পীর সাহেব চরমোনাই হযরত মাওলানা সৈয়দ মুহাম্মাদ ফজলুল করীম রহ. ১৯৮৭ সালে প্রতিষ্ঠা করেন এ সংগঠনটি। বর্তমানে এর আমীরের দায়িত্ব পালন করছেন মুফতি সৈয়দ মুহাম্মাদ রেজাউল করীম পীর সাহেব চরমোনাই। যিনি অত্যন্ত বিচক্ষণ ও বিশিষ্ট রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব।

আজ রবিবার সকাল ১০টায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ নারায়ণগঞ্জহ মহানগরের সভাপতি মুহা. নূর হোসেন ও সেক্রেটারি মুহা. সুলতান মাহমুদ  ইসলামী আন্দোলন-এর নেতাকর্মীদের মিথ্যা মামলায় হয়রানি না করার দাবিতে ডি.সি ও এস.পি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান শেষে এক বিবৃতিতে উপর্যুক্ত কথা বলেন।

নেতৃদ্বয় আরও বলেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ একটি নিয়মতান্ত্রিক ও সুশৃঙ্খল সংগঠন। আমরা আইনের প্রতি যথেষ্ট শ্রদ্ধাশীল এবং জ্বালাও-পোড়াও রাজনীতিতে আমরা বিশ্বাসী নই। প্রতিষ্ঠাকাল থেকে সুশৃঙ্খল কর্মসূচি ও রাজনৈতিক প্রজ্ঞা সাধারণ জনগণের মনে জায়গা করে নিয়েছে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। যার প্রমাণ বিগত সিটি নির্বাচনগুলোতে জনগণ দেখিয়ে দিয়েছে। বর্তমানে দেশে যে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি বিরাজমান তা আসলে কারো কাম্য নয়। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ পীর সাহেব চরমোনাইর নেতৃত্বে শান্তিপূর্ণভাবে কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছে।

বার্ত প্রেরক

বিলাল খান

প্রচার ও দাওয়া সম্পাদক