২৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ ১ মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

সোনারগাঁ উপজেলার কাঁচপুরে  ২৫০ বোতল ফেনসিডিলসহ রুবেল হোসেন (২৮) নামে এক মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-১১।

এসময়  মাদক পরিবহনের কাজে ব্যবহৃত ১টি প্রাইভেটকার জব্দ করা হয়। গ্রেফতার হওয়া রুবেল বরিশাল জেলার কাজীরহাট থানার আন্দারমানিক এলাকার মো. আনিস মুন্সীর ছেলে।


র‌্যাব-১১’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী জানান, গোপনতথ্যের ভিত্তিতে ২৮ ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে  কাঁচপুর সিএনজি এন্ড রিফিউলিং সেন্টারের সামনে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ঢাকাগামী পাকা রাস্তার উপর চেকপোষ্ট স্থাপন করে প্রাইভেটকার তল্লাশী করে ফেনসিডিলসহ এই মাদক কারবারীকে গ্রেফতার করা হয়।  এসময় প্রাইভেটকারটিও জব্দ করা হয়।


র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার জসিম উদ্দীন চৌধুরী জানান, গ্রেফতারকৃত আসামীকে জিজ্ঞাসাবাদ ও প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায় যে, রুবেল হোসেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার আঁটি হাউজিং সিদ্ধিরগঞ্জ এলাকায় বসবাস করে এবং প্রাইভেটকার চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে।

গ্রেফতারকৃত আসামী পলাতক আসামীর পরষ্পর যোগসাজশে প্রাইভেটকারযোগে যাত্রী পরিবহনের আড়ালে অভিনব পন্থায় ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ ও এর আশপাশের এলাকায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল ক্রয়-বিক্রয় ও সরবরাহ করে আসছিল।

তিনি জানান,  জিজ্ঞাসাবাদে মাদক পাচারকারী রুবেল হোসেন স্বীকার করে যে, সে দীর্ঘদিন যাবৎ পলাতক আসামীর যোগসাজশে অবৈধভাবে সীমান্ত এলাকা দিয়ে অভিনব কায়দায় নিষিদ্ধ মাদকদ্রব্য ফেনসিডিল বাংলাদেশে প্রবেশ করায় এবং বিশেষ কৌশলে প্রাইভেটকারযোগে নিয়ে এসে ঢাকা ও নারায়ণগঞ্জসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করে থাকে। মাদক ব্যবসা  ছিল তার একমাত্র পেশা। মূলত প্রাইভেটকার চালক তার একটি ছদ্মবেশ মাত্র।  


গ্রেফতারকৃত  ও পলাতক আসামীদের বিরুদ্ধে সোনারগাঁ থানায় আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলে জানান র‌্যাব-১১’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জসিম উদ্দীন চৌধুরী।