জি এম কাদের ও সেলিম ওসমান এবং লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি করোনাকালিন সময়ে তারা ঘরে বসে থাকেনি

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক সানাউল্লাহ সানু বলেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান জি এম কাদের ও সেলিম ওসমান এবং লিয়াকত হোসেন খোকা এমপি করোনাকালিন সময়ে তারা ঘরে বসে থাকেনি মানুষকে কি ভাবে সহোযগিতা করবে সে বিষয়ে সারাক্ষণ ব্যাস্ত ছিলেন,মানুষের চিকিৎসা সেবা ও ঘরে ঘরে খাবার পৌঁছে দিয়েছেন।

শুধু তাই নয় খানপুর হাসপাতালে আইসিও ১০টি ব্যাডের ব্যাবস্হা করেছিলেন দ্রুত জনগকে সেবা দেওয়ার জন্য, ডাক্তার নার্সদের খাওয়া থাকার  সুযোগ সুবিধার ব্যাবস্হা করেছিলেন যাতে করোনাকালিন বিনা চিকিৎসায় কেউ যেনো কষ্ট না পায়।

তারা নিজেদের জীবন কে বাজি রেখে মানুষের কল্ল্যানে কাজ করছেন আজ উনারা অসুস্থ্য মহান আল্লাহ পাক এর কাছে দোয়া করবেন যেনো দ্রুত সুস্হ্য হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে আসেন।

বৃহস্পতিবার বাদ আসর বন্দরের মদনগন্জে সায়েবা চাই নিজ রেষ্টুরেন্টে মহিলা পার্টির সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন ইসলামের উদ্যোগে জেলা ও মহানগর জাতীয় মহিলা পার্টির আয়োজনে অনুষ্ঠিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন জাতীয় পার্টির নেতাকর্মীদের আগামী সম্মেলনে যথার্থ মূল্যয়ান করা হবে এবং নারায়নগন্জে বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে যারা অবদান রেখেছে তাদের কে সাথে নিয়ে প্রতিটি ওয়ার্ড প্রযার্য়ে জাতীয় পার্টি কে শক্তিশালি করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নের মহাসড়কে আমরা কাজ করে যাবো ইনশাআল্লাহ।  

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে মহানগর সেচ্ছাসেবক পার্টির আহবায়ক গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী বলেন প্রয়াত সাংসদ নাসিম ওসমানের হাতে গড়া এই দলের প্রতিটি নেতাকর্মীর পাশা পাশি মহিলা নেত্রিদের ব্যাপক ভূমিকা রয়েছে,তারা আজও প্রমান করলো এদল কে কতোটা ভালো বাসে। 

জেলা জাতীয় মহিলা পার্টির সভানেত্রী বেগম আন্জুমান আরা সভাপতিত্বে ও মোঃ জুলহাস খান সন্চালনায় আরও বক্তব্য রাখেন নাসিকের ২৪ নং ওয়াডের কাউন্সিল ও মহানগর জাতীয় পার্টি সদস্য সচিব মোঃ আফজাল হোসেন। 

জাপা নেতা মোঃ জয়নাল আবেদীন, মোঃ কুতুবউদ্দিন চৌধুরী, আবুল বাসার খায়ের ভূঁইয়া,মোঃ মন্টু মিয়া, শাহ মোঃ শরিফ হোসেন, হাজী মোঃ সুমন প্রধান প্রমূখ। মিলাদ ও দোয়া পরিচালনা করেন মাওলানা আবুল কাসেম।