সিদ্ধিরগঞ্জে ইন্টারনেট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় দু’জন আহত

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে নাসিক ২ নং ওয়ার্ডের মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকায় ইন্টারনেট ব্যবসাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় দু’জন গুরুতর আহত হয়েছেন।

হামলার ঘটনায় রাজু নামের এক জনের হাতের আঙুল বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। আহতদের উদ্ধার করে সিদ্ধিরগঞ্জের সাইনবোর্ডস্থ একটি ক্লিনিকে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়ে দেন


সোমবার (১৬অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টায় সাহেবপাড়া পঞ্চায়েত মোড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন- মিজমিজি পশ্চিমপাড়া এলাকার রোকন হাজ্বীর ছেলে রাজু (৩০) ও মাদ্রাসা রোড এলাকার কবির (২৫)।


এলাকাবাসী জানান, মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ইন্টারনেট ব্যবসা করে আসছে রাজু। এই ব্যবসার নিয়ন্ত্রণ নিতে ইয়াছিন আরাফাত রাসেল ওরফে এজেন্ট রাসল নামে তার এক প্রতিপক্ষের সাথে দ্বন্দ হয় রাজুর।

বিষয়টি মিমাংসা করার জন্য রাজু ও কবির সাহেবপাড়া এলাকায় যায় রাসেলের লোকজনের সঙ্গে কথা বলতে। তখন তাদের মধ্যে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে এজেন্ট রাসেলের লোকজন তাদের উপর হামলা চালায়। এতে রাজু ও কবির গুরুতর আহত হয়।


আহত কবির জানান, কথাবার্তার এক পর্যায় বিল্লালের নেতৃত্বে কাদের, সুজন, আকবর, সুমনসহ কয়েকজন চাপাতি দ্বারা আমাদের উপর হামলা করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, দেশীয় ধারালো অস্ত্র দিয়ে রাজু ও কবিরকে কোপানো হয়। নিজেদের রক্ষা করতে তারা দৌঁড়ে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের অফিসে প্রবেশ করে। হামলাকারীরা সেখানে গিয়েও হামলা করে এবং অফিসের চেয়ার ভাঙচুর করে।


হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জানান, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।


ঘটনাস্থলে থাকা সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফয়সাল আলম জানান, প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করেই এই সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। সংঘর্ষের ঘটনায় দুইজন গুরুতর আহত হয়েছে। এ বিষয়ে এখনো কোনো পক্ষ থানায় এসে অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।