সাংবাদিক জামাল তালুকদারের উপর সন্ত্রাসীদের হামলায় আড়াইহাজার উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা

উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা
উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিবাদ সভা (ছবি সকাল নারায়ানগঞ্জ)

মোঃ এফরান আলী
প্রকাশ্যে দিবালোকে বর্বরোচিত হামলার ঘটনায় আরাইহাজার উপজেলার প্রেসক্লাবের উদ্দ্যেগে এক পতিবাদ ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গত সোমবার ২১অক্টবার অগ্রবাণী প্রতিদিন ও সকাল নারায়ণগঞ্জ এর ছিফ ফোট সাংবাদিক জামাল তালুকদার বিকেলে বাসা থেকে অফিসে যাওয়া সময় পূর্ব পরিকল্পিত ভাবে সন্ত্রাসী হামলায় গুরুত্বর আহত হয়েছে। এই ঘটনা কে কেন্দ্র করে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতিবাদ সভার অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, আড়াইহাজার  উপলক্ষে প্রেসক্লাবের সভাপতি মোঃ এফরান আলী।

সভাপতি বক্তব্যে বলেন,প্রকাশ্যে দিবালোকে হামলাকারীদের কে গ্রেফতার করে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করাতে হবে। ঐ সময় আরো বক্তব্য রাখেন,আড়াইহাজার উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোস্তফা কামাল, মাহতাব উদ্দিন, আলম খান, সেলিম রেজা, সাহিল সারোয়ার, সাইফুল ইসলাম, মামুন, সুফিয়া বেগম, এমদাদুল ইসলাম, সাফিকুল ইসলাম প্রমুখ্য।

উল্লেখ্য যে, গত সোমবার বিকালে সংবাদের জের ধরে অগ্রবাণী প্রতিদিন পত্রিকার চীফ ফোট সাংবাদিক জামাল তালুকদারকে অফিসে যাওয়ার পথে মাদক ব্যানসায়ী ও অপরাধ  জগর এর কিং কুমুদিনী বাগান এলাকায় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা আরজু,চুন্না,গাজী সহ ১০/১৫জন পথ আটকিয়ে তাকে মেরে ফেলার উদ্দেশ্যে লোহার রড, লাঠি দিয়ে মারতে থাকে। এসময় আমার সাথে থাকা স্ত্রীকেও লোহার রড দিয়ে পায়ে আঘাত করে। আমাদের চিৎকারে আশে পাশের লোক জড়ো হলে মাদক ব্যাবসায়ীরা পালিয়ে যায়। সাংবাদিকরা সমাজের বিবেক একজন আদর্শবান সাংবাদিক যদি সমাজে নিরাপত্তা না পায় তাহলে তাদের এ ঝুঁকিপূর্ণ কাজে সন্ত্রাসীদের দ্বারা আক্রান্ত হলে এর দায়ভার কে নিবে।

এই ঘটনা কে কেন্দ্র করে সারা নারায়ণগঞ্জে ব্যাপক উদ্বেগ ও ক্ষোভের সঞ্চার হইয়াছে।  নিন্দা ও প্রতিবাদে সোচ্চার হইয়া উঠিয়াছেন নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক মহল, সুশিল সমাজ বিভিন্ন স্তরের নানা শ্রেণী-পেশার মানুষ।