বিশ্বব্যাপী সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের স্মরণে আনন্দধামের র‍্যালী ও সমাবেশ।

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

সড়ক দুর্ঘটনায় কবলিত ক্ষতিগ্রস্থদের স্মরনে আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে আনন্দধামের র‍্যালী ও সমাবেশ সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবারে পাশে থাকা সমাজের নৈতিক দায়িত্ব- আনন্দধাম 

আজ ১৫ ই নভেম্বর “World Day of Remembrance for Road Traffic Victims” সড়ক দুর্ঘটনায় কবলিত ক্ষতিগ্রস্থদের স্মরনে আন্তর্জাতিক দিবস উপলক্ষে আনন্দধামের উদ্যোগে এক মৌন র‍্যালী ও জনসচেনতা সমাবেশের আয়োজন করা হয়। র‍্যালীটি নারায়ণগঞ্জ শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক পরিভ্রমণ করে প্রেস ক্লাব চত্বরে এসে সমাবেশের মাধ্যমে শেষ হয়।


প্রেসক্লাব চত্বরের সমাবেশে  আনন্দধামের ভাইস চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মুক্তির সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আনন্দধামের নবনিযুক্ত অতিরিক্ত মহাসচিব আলহাজ্ব আবদুল মান্নান মেম্বার, যুগ্ম মহাসচিব শ্যামল দত্ত,  আনন্দধামের পরিচালক বিশ্বজিৎ সাহা, রতন পোদ্দার, মনোয়ার মুন্না,  আনন্দধাম সাহিত্য পরিষদের সভাপতি এনামুল হক প্রিন্স ও সাধারণ সম্পাদক কবি জাহাঙ্গীর ডালিম ও শেখ মনির।

এসময় আনন্দধামের  পরিচালক বৃন্দের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সর্বজনাব খোকন গাজী, মোঃ আরিফ, মোঃ শাহাদাত , মোঃ কামু, মোঃসিনাফি, লক্ষ্মী সরকার, হাসিনা শেখ, ঝুনু বেগম, আনোয়ার হোসেন  প্রমুখ।


বক্তাগন তাদের বক্তব্যে বিশ্বব্যাপী সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ও আহতদের স্মরনে গভীর শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন আমাদের সামান্য  সতর্কতার অভাবে প্রতি বৎসর কয়েক লক্ষ মানুষ প্রান হারাচ্ছে ও বহু পরিবার নিঃস্ব হয়ে যাচ্ছে। আমরা আনন্দধামের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট সবাইকে অনুরোধ করবো মানুষের জীবনকে সর্বোচ্চ বিবেচনায় রেখে ট্রাফিক আইন মেনে চলতে। সরকার যেন বিভিন্ন প্রচার মাধ্যমে অপামর জনগনকে ট্রাফিক আইন সম্পর্কে  আরো অধিকতর সচেতন করে তুলে।  বিভিন্ন সময় সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের পরিবারের  পাশে দাঁড়ায়। 


বক্তরা আনন্দধামের তরফ থকে বলেন, আনন্দধাম মনে করে সড়ক দুর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার হাত প্রসারিত করা সমাজের নৈতিক দায়িত্ব।  


সমাবেশে আনন্দধামের তরফ থেকে সরকারের কাছে জোর দাবি জানানো হয় যেন সরকার সড়ক দুর্ঘটনা রোধে  জাতীয় টাস্কফোর্স গঠন করে সবার মতামতের ভিত্তিতে আরো অধিকতর গতিশীলতার সাথে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করে।