নারায়ণগঞ্জে বাড়িওয়ালার হামলায় নিহত ভাড়াটিয়া পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার দাবি ভাড়াটিয়া পরিষদের

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

নারায়ণগঞ্জে  বাড়ি ভাড়ার টাকার জন্য বাড়িওয়ালা কর্তৃক ভাড়াটিয়াকে হত্যা করার ঘটনাকে  মধ্যযুগীয় বর্বরতার সাথে তুলনা করে জড়িত বাড়িওয়ালা গংকে অবিলম্বে গ্রেফতার  করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি ও নিহতের পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার  দাবি জানিয়েছে ভাড়াটিয়া পরিষদ।


আজ ১৬ নভেম্বর ২০২০ইং সোমবার  সরেজমিনে তদন্ত শেষে ভাড়াটিয়া পরিষদের কেন্দ্রীয় সভাপতি মোঃ বাহারানে  সুলতান বাহার, যুগ্ম সম্পাদক মোহাম্মদ মোস্তফা ও নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার  সভাপতি গাজী মোঃ নূরে আলম এক যৌথ বিবৃতিতে এ দাবি করেন।


নেতৃবৃন্দ  বলেন, “নারায়ণগঞ্জ সিটিকর্পোরেশনের ১৮নং ওয়ার্ডে নিতাইগঞ্জের নলুয়াপাড়ায়  ১৫০০ টাকা বকেয়া বাড়িভাড়া না দেয়ায় বাড়িওয়ালার হাতে মেহেদী হাসান (৫২) নামে  এক ভাড়াটিয়া খুন হয়েছেন। ১২ নভেম্বর বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৯টায় বাড়িভাড়ার  বকেয়া ১৫০০ টাকার জন্য বাড়ির মালিক সুজনের ভাই রানার সঙ্গে বাকবিতন্ডা হয়  মেহেদী হাসানের। পরে বাড়িওয়ালা গং হামলা চালিয়ে মেহেদী হাসানকে নির্মম ভাবে  হত্যা করে। এ ঘটনায় পুরো জাতি আজ হতভম্ব। আমরা এ ঘটনার সাথে জড়িতদের  দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।”


তাঁরা বলেন, “হত্যাকান্ডের প্রায় ৩ দিন  অতিবাহিত হলেও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী এখনো কাউকে গ্রেফতার করেনি। এ ঘটনায়  সারাদেশের ভাড়াটিয়ারা আজ আতঙ্কিত। আমরা অবিলম্বে জড়িতদের গ্রেফতারের দাবি  জানাচ্ছি। পরিবারের উপার্জনক্ষম ব্যক্তিকে আকস্মিকভাবে হারিয়ে অসহায়  পরিবারটি আজ পথে বসেছে। আমরা নিহতের পরিবারকে ৫০ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়ার  দাবি করছি এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানাচ্ছি।”


বার্তাপ্রেরক,(মোহাম্মদ মোস্তফা)যুগ্ম সম্পাদকমোবাইল : ০১৭০৯-০২৮৮২৩