ক্যান্সার আক্রান্ত শাওনের চিকিৎসা ও ১ বছর সংসার ব্যয় বহনের দায়িত্ব নিলেন সেলিম ওসমান

সকাল নারায়নগঞ্জঃ

বন্দর ছালেনগর এলাকার ক্রিকেট কোচ ক্যান্সার আক্রান্ত কাজী ছাফফাত হোসেন শাওন এর চিকিৎসা ব্যয় বহনের দায়িত্ব নিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান। পাশাপাশি তার মা আর তিন ভাইকে নিয়ে সংসারটির আগামী ১ বছরের ব্যয় বহনের দায়িত্ব নিয়েছেন তিনি। তাদের সংসার খরচ চালানোর জন্য প্রতি মাসে ১৫ হাজার টাকা করে আগামী এক বছর এবং শাওনের চিকিৎসার যাবতীয় খরচ এমপি সেলিম ওসমানের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উইজডম অ্যাটায়ার্স লিমিটেড এর পক্ষ থেকে বহন করা হবে।

শনিবার ১৫ আগস্ট বিকেল সাড়ে ৩টায় এমপি সেলিম ওসমান সরেজমিনে কাজী ছাফফাত হোসেন শাওন এর বাসায় গিয়ে তাঁর খোজ খবর নেন এবং তার চিকিৎসার সকল ব্যয় ও আগামী ১ বছর তাদের সংসার চালানোর খরচ চালাবেন বলে দায়িত্ব নেন। এসময় এমপি সেলিম ওসমানের সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা ইউনিট কমান্ড এর সাবেক কমান্ডার মোহাম্মদ আলী, এমপি সেলিম ওসমান এর জামাতা ও উইজডম অ্যাটায়ার্স লিমিটেড এর নির্বাহী পরিচালক আখতার হোসেন অপূর্ব, মহানগর যুব মহিলালীগ এর সভানেত্রী ইসরাত জাহান খান স্মৃতি, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হাসনাত রহমান বিন্দু।

সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান বলেন, গত কয়েকদিন ধরেই তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক পেইজ সেলিম ওসমান সাপোটার্স ফোরামের ইনবক্সে শাওন এসএমএস করে সহযোগীতা কামনা করে আসছিলেন। কিন্তু তিনি ব্যস্ততার কারনে ইনবক্স চেক করতে পারেনি। ১৪ আগস্ট তিনি ইনবক্স চেক করে শাওনের মেসেজ গুলো দেখতে পেয়ে তাঁর সাথে যোগাযোগ করেন এবং শনিবার ১৫ আগস্ট জেলা জাতীয় পার্টির আহবায়ক আবুল জাহের এর জানাজা শেষে ফেরার পথে শাওনের বাসায় যান। এ সময় তিনি শাওনের চিকিৎসার সকল দায়িত্ব গ্রহন করেন।

তিনি আরো বলেন, শাওনের চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন সময় যারা বিভিন্ন সংগঠন এবং ব্যক্তিগত ভাবে সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাদের সকলের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি এমন মহৎ কাজ করার জন্য। আপাতত আমি ওর চিকিৎসার দায়িত্ব নিচ্ছি। যারা শাওনের চিকিৎসার জন্য সহযোগীতা করতে আগ্রহ প্রকাশ করবেন তারা এটি সঞ্চিত রাখুন। যদি আমি কখনো অপরাগ হই তখন আপনারা শাওনকে সহযোগীতা কইরেন।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বন্দর ছালেহ নগর এলাকার মৃত কাজী মোতাহার হোসেন এর ছেলে কাজী ছাফফাত হোসেন শাওন। গত ৪ বছর আগে মারা যান শাওনের বাবা কাজী মোতাহার হোসেন। ৪ ভাই ও মাকে নিয়ে শাওনের সংসার। ভাইদের মধ্যে দ্বিতীয় মরনব্যাধী ক্যান্সার আক্রান্ত কাজী ছাফফাত হোসেন শাওন। বড় ভাই আগেই বিয়ে করে আলাদা হয়ে গেছেন। বাকি ছোট দুই ভাই আর মাকে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে বসবাস করেন শাওন। একমাত্র তার উপার্জনের উপর নির্ভর করেই তাদের সংসার চলতো। গত প্রায় ১ বছর ধরে ক্যান্সার ধরা পড়ে শাওনের। নিজের চিকিৎসা করতে গিয়ে সর্বস্ব বিলিন করেছেন। বর্তমানে বিভিন্ন জনের সহযোগীতায় তার চিকিৎসা চলছিলো। নিজের চিকিৎসা ব্যয় এবং সংসার চালাতে গিয়ে শাওনের ছোট ভাই বন্দর বিএম ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ে ৯ম শ্রেনী পড়–য়া শ্রাবনের লেখাপড়াও বন্ধ করে দিয়েছেন। গত ৮দিন ধরে শাওন একটি থাইগøাসের দোকানে কাজে যোগ দিয়েছেন।

শাওনের মায়ের কাছ থেকে এসব কথা শুনে এমপি সেলিম ওসমান শ্রাবনকে কাজে যাওয়া বন্ধ করে পুণরায় পড়ালেখা শুরু করতে বলেন এবং শাওনের মায়ের চাহিদা অনুযায়ী তাদের সংসার চালানোর জন্য প্রতি মাসে ১৫ হাজার টাকা করে প্রদানের দায়িত্ব নেন।

ক্যান্সার আক্রান্ত শাওন জানান, তার চিকিৎসার জন্য এখন পর্যন্ত প্রায় ১০ লাখ টাকা ব্যয় করেছেন। বর্তমানে বিভিন্ন জনের সহযোগীতায় তার চিকিৎসা চলছে। এখনো তার আরো ৭টি কেমো থেরাপি এবং ৪০টি রেডিও থেরাপী নেওয়া বাকি রয়েছে। এমন অবস্থায় নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমান নিজে তাঁর বাসায় এসে চিকিৎসার সকল দায়িত্ব নিয়েছেন। এতে করে সে যেন নতুন করে বাচার স্বপ্ন দেখছেন। আল্লাহ যেন সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানকে নেক হায়াত ও সুস্থ্যতা দান করেন।