ক্যান্সার আক্রান্ত বন্দরের ক্রিকেট কোচ শাওনের পাশে দাড়ালো স্পিক আউট

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

ক্যান্সার আক্রান্ত বন্দরের ক্রিকেট কোচ শাওনের পাশে দাড়িয়েছে স্পিক আউট। বুধবার(১৫ জুলাই) জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে শাওনের হাতে চেক তুলে দেন স্পিক আউট।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সাংসদ একেএম শামীম ওসমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা প্রশাসক মোঃ জসীমউদ্দিন, সাবেক এআইজি মালিক খসরু। আরো উপস্থিত ছিলেন, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমদে টিটু, কোষাধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর হোসেন মোল্লা প্রমুখ।

এসময় প্রধান অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান বলেন, শাওনের জন্য যারা এগিয়ে এসেছেন তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করতেছি, এগিয়ে আসাটাই স্বাভাবিক।জন্মটা অনিশ্চিত কিন্তু মৃত্যুটা নিশ্চিত। যে জন্মাবে তাকে মৃত্যুবরণ করতেই হবে। কিন্তু আমরা কি নিয়ে যাচ্ছি সাথে? এইটা হলো মূল ব্যাপার। প্রতিটি ধর্মে এবং মনুষ্যত্বের ধর্মে পরিষ্কারভাবে বলা আছে, আমরা দুনিয়াতে শুধু খেতে আসি নাই, কিছু করতে এসেছি এবং যেটা করতে এসেছি তা হলো মানুষের জন্য করা এবং জীবের জন্য করা। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সাবেক এআইজি মালিক খসরু বলেন, সারাবিশ্বে দুঃসময়ে চলছে। আমরা বিচ্ছিন্ন দ্বীপে বসবাস করতে পারবো না তাই আমাদের নৈকট্য বাড়াতে হবে।

আজকে শাওন যে সমস্যায় পরেছে তা যে কেউ পরতে পারে। তাই সবার দিকে খেয়াল রাখতে হবে। সরকার সবকিছু দিতে পারবে না, সবাইকে মিলে করতে হবে, যার একটি অংশ স্পিকআউট। সামনে কোরবানী ঈদ, এই ঈদের মহিমান্বিতকে সামনে রেখে যদি আমরা সামনে আগাই তাহলে অনেকের পাশে দাড়ানো সম্ভব। জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক তানভীর আহমেদ টিটু বলেন, আমি এবং জেলা ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক্ষ জাহাঙ্গীর হোসেন মোল্লা শাওনকে আর্থিকভাবে সাহায্যের চেষ্টা করেছি।

এটা আমাদের দায়িত্ব ছিলো। আমাদের সামনে খেলে বড় হয়ে উঠেছে শাওন। আমাদের করার ইচ্ছা থাকে কিন্তু সামর্থ্য থাকে না সবসময়। স্পিক আউটের চেয়ারম্যান সুপান রায় বলেন, শুধুমাত্র শাওনের পাশে না আমরা এরকম আরো অনেক পরিবারের পাশে দাড়িয়েছি এবং দেশের যেকোনো দরকারে আমরা পাশে দাড়াবো। আজকে আমাদের পক্ষ থেকে শাওনকে একটি ক্যামো থেরাপির ব্যবস্থা করে দেয়া হলো এবং বাকি ক্যামো থেরাপিগুলোর ব্যবস্থা আমারা করে দিবো।