এবার রিটার্ন জমার সময় নিয়ে যা বললেন এনবিআর চেয়ারম্যান

সকাল নারায়ণগঞ্জ অনলাইন ডেস্কঃ

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেছেন, ব্যক্তিশ্রেণির করদাতাদের বার্ষিক আয়কর রিটার্ন জমা দেয়ার সময় এবার ঢালাওভাবে বাড়ানো হবে না। 

বৃহস্পতিবার রাজধানীর সেগুনবাগিচার এনবিআর কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি একথা বলেন।

করোনার কারণে রিটার্ন জমার সময় বাড়ানো হবে কিনা- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, ঢালাওভাবে বাড়ানো হবে না।  তবে যারা নির্ধারিত সময়ে রিটার্ন জমা দিতে পারবেন না, তারা আইনানুযায়ী সময়ের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আগামী ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত রিটার্ন জমা দেয়া যাবে। করোনার কারণে এবার কর মেলা হচ্ছে না।

তিনি বলেন, করদাতাদের সুবিধার জন্য প্রতিটি কর অঞ্চলে কর মেলার পরিবেশে রিটার্ন গ্রহণ, কর শনাক্তকরণ নম্বর (টিআইএন) প্রদান, কর তথ্যসেবা প্রদান করা হচ্ছে। রিটার্ন দাখিলের পর করদাতাদের তাৎক্ষণিকভাবে প্রাপ্তি স্বীকারপত্রও দেয়া হচ্ছে।

অনতিবিলম্বে সব ইন্টারনেট ভিত্তিক কোম্পানি যেমন গুগল-ফেসবুক, ইউটিউব, অ্যামাজন কোম্পানিগুলোকে পরিশোধিত অর্থ থেকে বাংলাদেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী সব ধরনের ট্যাক্স, ভ্যাট এবং অন্যান্য রাজস্ব আদায় করতে নির্দেশ দিয়ে গত ৮ নভেম্বর একটি রায় দিয়েছেন হাইকোর্ট।

হাইকোর্টের এই নির্দেশনার বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, রায় এখনও হাতে আসেনি। এই খাত থেকে রাজস্ব আদায়ে অসুবিধা হল- শুধু ব্যাংকের মাধ্যমে পাঠানো অর্থ থেকেই আমরা রাজস্ব পাই। হুন্ডির মতো অন্যান্য মাধ্যমে অর্থ পাঠানো হলে তা থেকে রাজস্ব পাওয়া যায় না। এসব নিয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ, তথ্য ও প্রযুক্তি, বাণিজ্য এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠক করা হচ্ছে বলে জানান তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে এনবিআরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।