ইপাস সড়ক ও মদনপুর চৌরাস্তা হওয়া উচিত – জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

নারায়ণগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ বলেছেন, আমি আপনাদের সমস্যার কথা শুনেছি,আপনাদের ব্রিজ(নবীগঞ্জ ফেরি ঘাট)টা হওয়া জরুরী,বাইপাস সড়ক ও মদনপুর চৌরাস্তা হওয়া উচিত।

ময়লা আবর্জনা’র কথা বলেছেন, আসলেই নারায়ণগঞ্জের সবজায়গাই ময়লা আবর্জনা ও যানজট আছে। আমরা চেষ্টা করব একটি কর্মপরিকল্পনা নিয়ে এটাকে রিডিউস(কমিয়ে আনা) করতে।

প্রথম দিনেই মনে হয়েছে এখানে একটি ব্রিজ দরকার। আমরা কাজ শুরু করে দিয়েছি। আমি জানি আমাদের সময় খুব কম কিন্তু আমি চাই এই অল্প সময়েই বন্দরকে একধাপ এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই। আমি জানি টিম বন্দর অত্যন্ত দক্ষ।

এ সময় তিনি ইতিহাস ঐতিহ্য ধারন করে ২০০ ছবি সংবলিত মিউজিয়ামের মাধ্যমে নারায়ণগঞ্জ বিশ্বের কাছে তুলে ধরার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন এবং বলেন বন্দর নারায়ণগঞ্জকে সারা বিশ্বের সাথে পরিচয় করিয়ে দিতে চাই।


২৬ জানুয়ারী সোমবার বেলা ১১টায় বন্দর উপজেলা অডিটোরিয়ামে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা প্রশাসক মোস্তাইন বিল্লাহ আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জে আমি এসেছি কাজ করতে। শাসক হিসেবে নই আমি এসেছি টিম নারায়নগঞ্জের একজন সদস্য হতে। নারায়ণগঞ্জের সাধারণ মানুষের মেম্বার হিসেবে এ জেলাকে এগিয়ে নিতে আমার ক্ষুদ্র প্রয়াস থাকবে। এসময় তিনি সরকারি কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে বলেন যাদের ট্যাক্সের টাকায় আমাদের বেতন দেয়। তাদের কাছে টানতে হবে। তাদের সাথে ভালো ব্যবহার করতে হবে।

তাদের সেবা দিতে হবে। আপনাদের প্রতিই অনুরোধ আপনারাও দালাল চক্রের কাছে নয় সেবা নিতে সরাসরি সরকারি অফিসে আসুন। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বন্দর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শুক্লা সরকার।

বন্দর উপজেলা চেয়ারম্যান বীরমুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম এ রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, বন্দর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আসমা সুলতানা নাসরিন,বন্দর থানা অফিসার ইনচার্জ দীপক চন্দ্র সাহা,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান সালিমা হোসেন শান্তা,বন্দর প্রেসক্লাবের সভাপতি মোবারক হোসেন খান কমল, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ¦ দেলোয়ার হোসেন প্রধান, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন, মদনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ¦ এম.এ সালাম, মুছাপুর ইউপি চেয়ারম্যান মাকসুদসহ বন্দর প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ বিভিন্ন স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও বিভিন্ন মসজিদের ইমামসহ উপজেলা পরিষদের বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বন্দর উপজেলা পল¬ী উন্নয়ন কর্মকর্তা আবু জাফর।