অটিজম জননী হাসিনা রহমান সিমুর কন্যা মরহুমা সাবিলার কুলখানি অনুষ্ঠিত।

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

আদ্য ১৭ ই জুলাই রোজ শুক্রবার বাদ জুম্মা অটিজম জননী হাসিনা অটিজম চাইল্ড কেয়ারের প্রতিষ্ঠাতা ও আনন্দধামের নির্বাহী চেয়ারম্যান হাসিনা রহমান সিমুর কন্যা মরহুমা সাবিলার কুলখানি তাদের বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়। 

এই উপলক্ষে কোরানখানি ও দোয়ার আয়োজন করা হয়। করোনা জনিত পরিস্থিতির কারণে যথাবিহিত স্বাস্থবিধি অনুসরণ করে বিভিন্ন মাদ্রাসা ও এতিমখানায় এবং গরীব দুখীদের মাঝে খাদ্য বিতরণ করা হয়। 

এখানে উল্লেখ্য যে,  হাসিনা রহমান সিমুর কন্যা সাবিলা কিডনি সংক্রান্ত জটিলতায় মাত্র ১৭ বসর বয়সে গত ৮ই জুলাই ঢাকার একটি হসপিতালে চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় ইন্তেকাল করেন। ওই দিনই মরহুমাকে বন্দরের ফরাজীকান্দা গোরস্তানে ইসলামিক রীতি অনুযায়ী দাফন করা হয়। 

কুলখানি উপলক্ষে  হাসিনা রহমান সিমু তার কন্যার মৃত্যুতে যারা সমবেদনা জানিয়েছেন বিশেষ করে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়েরপ্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, বাংলাদেশের বিশিষ্ট নাগরিক ব্যারিস্টার আমিরুল ইসলাম,  সুপ্রিম কোর্টের মাননীয় বিচারপতি মীর হাসমত আলী, জাতীয় শ্রমিক লীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি ফজলুল হক মন্টু, সাবেক সেনাবাহিনী প্রধান লেফটেন্যান্ট জেনারেল হারুন অর রশিদ,  নাসিক মেয়র সেলিনা হায়াত আইভি, মাননীয় সংসদবৃন্দ, যুগ্ম অর্থসচিব  শহিদুল হারুন, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবদুল কাদির, সিনিয়র সাংবাদিক আবু সাউদ মাসুদ, পুলিশ প্রশাসন ও জেলা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ,  সিভিল সার্জন ডাঃ মোহাম্মদ  ইমতিয়াজ,  শ্রমিক লীগের জেলা সভাপতি কামাল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মাইনুদ্দিন আহমেদ বাবুল,আনন্দধামের প্রধান সমন্বয়কারি প্রবীন সাংবাদিক আলহাজ্ব দীল মোহাম্মদ দীলু,  আনন্দধামের মহাসচিব আজিজুল ইসলাম বাবু ও সাংবাদিক ভাইরা  সহ  সবাইকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন আপনাদের সমবেদনা আমাকে বেচে থাকার সাহস যোগাবে ও প্রতিবন্ধী শিশু-কিশোরদের নিয়ে কাজ করতে অনুপ্রানিত করবে। আপনারা সবাই সাবিলার জন্যে দোয়া করবেন।