লুৎফা টাওয়ারের মালিকের ছেলে সুমন অবৈধ ভিওআইপি’র ব্যবসা মামলায় কারাগারে

লুৎফা টাওয়ারের মালিকের ছেলে সুমন অবৈধ ভিওআইপি’র ব্যবসা মামলায় কারাগারে
লুৎফা টাওয়ারের মালিকের ছেলে সুমন অবৈধ ভিওআইপি’র ব্যবসা মামলায় কারাগারে (ছবি সকাল নারায়ানগঞ্জ)

সকাল নারায়ানগঞ্জঃ নারায়ণগঞ্জ শহরের চাষাঢ়া লুৎফা টাওয়ারের মালিক প্রয়াত হাজী আব্দুর রউফের ছেলে লুৎফর রহমান সুমন অবৈধ ভিওআইপি মামলায় গ্রেফতার হওয়ার পর নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশ তাকে আদালতে প্রেরন করেন। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ প্রদান করেন।

রবিবার (১৫ডিসেম্বর) দুপুরে নারায়ণগঞ্জ জেলা আদালতে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (ক-অঞ্চল) ফাহমিদা খাতুনের আদালতে গ্রেফতার হওয়া আসামী সুমনের জামিনের আবেদন করা হলে আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে তাকে কারাগারে প্রেরনের নির্দেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক মোঃ আসাদুজ্জামান।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানায় সুমনের বিরুদ্ধে বিশেষ ট্রাইব্যুনাল ওয়ারেন্ট নাম্বার ৮৫/০৬ একটি ওয়ারেন্ট রয়েছে। তাছাড়া অবৈধ ভিওআইপির ব্যবসার অভিযোগে ২০০৭ সালে বাংলাদেশ টেলি যোগাযোগ আইন ২০০১ এর ৩৫ এর ‘ক’ সহ ১৯৭৮ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫ এর ২ ধারায় তার বিরুদ্ধে মামলা রয়েছে।

জানা যায়,গত ১৪ ডিসেম্বর বিকেলে নগরীর লুৎফা টাওয়ারের পাশের গলি থেকে সদর মডেল থানার থানার অফিসার ইনচার্জ আসাদুজ্জামান আসাদ এর নির্দেশে লুৎফর রহমান সুমনকে গ্রেফতার করেন উপ-পরিদর্শক (এস.আই) শাহাদাৎ।       

উল্লেখ, গত (৮ ডিসেম্বর) রোববার নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবে তার চার বোন পৈত্রিক সম্পত্তি দখলের অভিযোগে লুৎফর রহমান সুমনের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন করেন। তার চার বোন আসমা আক্তার সুইটি, মাহমুদা মাকসুদ সোনিয়া, তানিয়া রউফ অথী ও সাদিয়া রহমান সুগন্ধা জানান, সুমন একাই তাঁদের বাবার সব সম্পত্তি জোরপূর্বক দখলে নিয়েছে। এছাড়াও তাদের মা ও কর্মচারীদের দিয়ে চার বোন ও স্বামীদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দিয়ে তাদেরকে প্রতিনিয়ত হয়রানি করে আসছে।