সিদ্ধিরগঞ্জে বিট পুলিশের কার্যালয় উদ্ধোধন

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

সিদ্ধিরগঞ্জে ২ নম্বর ওয়ার্ডে বিট পুলিশের কার্যালয় উদ্ধোধন করা হয়েছে।

শনিবার (৪ জুলাই) বিকেল ৪ টায় মিজমিজি কান্দাপাড়া এলাকায় এ বিট পুলিশের কার্যালয় উদ্ধোধন করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: কামরুল ফারুক। সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ওসি অপরেশন মো: রুবেল হাওলাদারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে ছিলেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগের সধারণ সম্পাদক হাজি ইয়াছিন মিয়া, নাসিক ২ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইকবাল হোসেন, ওসি তদন্ত ইসতিয়াক রাসেল, সমাজ সেবক আবদুর রহিম মেম্বার, আমিন উদ্দিন, মোক্তার হোসেনসহ প্রমুখ।

সিদ্ধিরগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো: কামরুল ফারুক বলেছেন, অপরাধ নির্মল করতে জনপ্রতিনিধি, রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ ও সমাজের বিভিন্ন শ্রেণির মানুষের সহযোগীতা প্রয়োজন। সাধারণ মানুষকে আর পুলিশের কাছে যেতে হবেনা। পুলিশই জনগণের কাছে ছুটে আসবে। পুলিশের সেবা সাধারণ মানুষের দ্বারপ্রান্তে পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে এই কার্যক্রম হাতে নেওয়া হয়েছে।

পর্যায়ক্রমে থানা এলাকার ১০ টি ওয়ার্ডেই বিট পুলিশিং কার্যালয় করা হবে বলে নিশ্চিত করেন ওসি। সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে ও যৌতুক মুক্ত সমাজ গড়তে এবং সার্বক্ষণিক পুলিশিং সেবা প্রদান করার জন্য এই পুলিশিং বিট কার্যালয়ের দায়িত্বে নিয়োজিত রয়েছেন উপ-পরিদর্শক আমিনুল ইসলাম ও মাহবুব। কার্যালয়টিতে থাকবে অভিযোগ বক্স।

যে কোন ধরনের অপরাধি ও গোপন তত্য এবং অভিযোগ লিখে এ বক্সে ফেলতে পারবে সাধারণ মানুষ। অভিযোগ ও তথ্য তদন্ত সাপেক্ষে পুলিশ আইনগত প্রয়োজনীয় ব্যাবস্থা গ্রহন করবে বলে নিশ্চেত করেন ওসি কামরুল ফারুক। নাসিকের কাউন্সিলর ইকবাল জানান,পুলিশের এই কার্যক্রমটি আমার ভালো লেগেছে।এতে এলাকার জনগনের জন্য ভালো হবে।আর থানায় যেতে হবে না।এখন সবাই এখানে অভিযোগ দিতে পারবে।

এখন দেখা যাক কতটুকু সুফল পাওয়া যায়। থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়া বলেন,আশা করি এই কার্যক্রমটি আমাদের অনেক উপকার করবে।এলাকায় কিশোর গ্যাং দের দৌরাত্ব যেনো বেড়ে চলছে।বিভিন্ন সময় দেখা যায় তারা বেপরোয়া ভাবে মোটরসাইকেল চালায়।এতে অনেকের সমস্যা হয়। এখানে বিট পুলিশের যারা দায়িত্বে থাকবে আশা করি তারা এখানে সব কিছু দেখতে পারবে।

এখন আর আমাদের চিন্তা নেই।আগে কিছু হলে আমাদের কাছে চলে আসতো।এখন তারা বিট পুলিশের মাধ্যমে সব ধরনের সুবিধা পাবে বলে আমি আশা করি। তিনি আরো বলেন,সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ, মাদক, ইভটিজিং, বাল্য বিয়ে ও যৌতুক মুক্ত সমাজ গড়তে এবং সার্বক্ষণিক পুলিশিং সেবা প্রদান করার জন্য এই পুলিশিং বিটের উদ্ধোধন করা হয়েছে।