সদর থানার এসআই শামীমকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে নিযুক্ত

সকাল নারায়ণগঞ্জঃ

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

নারায়ণগঞ্জ সদর থানার এসআই শামীমকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। এরপর তাকে পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়েছে।
 বুধবার ( ২৬ আগস্ট) নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার মোঃ জাহিদুল আলম এ তথ্য জানিয়েছেন।


গণধর্ষণের পর মৃত স্কুল ছাত্রী জিসা মনি (১৫) জীবত উদ্ধার হওয়া মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ছিলেন আলোচিত এসআই শামীম। মামলাটির সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে তাকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।


পুলিশ সুপার জায়েদুক আলম জানান, স্কুল ছাত্রী দিশা মনির ঘটনায় গঠিত তিন সদস্য বিশিষ্ট সহায়ক কমিটি দুটি বিষয় নিয়ে কাজ করছে। একটি হলো আসামিরা হত্যা ও ধর্ষন না করেও কেন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিল ও কিভাবে তদন্তকারি কর্মকর্তা তাদের কাছ থেকে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি নিল।


পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম আরও বলেন, আমরা বিভিন্ন গণমাধ্যমে দেখেছি স্বজনরা অভিযোগ করেছে তদন্ত কর্মকর্তা আসামির স্বজনদের কাছ থেকে টাকা নিয়েছে এবং জোরপূর্বক ভয় দেখিয়ে জবানবন্দি নিতে বাধ্য করেছে।

 
এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত আসামির স্বজনরা পুলিশের কাছে লিখিত কোন অভিযোগ করেনি। কিন্তু তারপরেও তদন্তের স্বার্থে আমরা প্রত্যেকটি অভিযোগ নিখুঁতভাবে খতিয়ে দেখব। এখানে কোন অপরাধীদের ছাড় দেয়া হবে না। সে যেই হোক না কেন।