করোনা সচেতনতায় মাস্ক ও হ্যান্ড-স্যানিটাইজার বিতরণ করেছে র‍্যাব-৪

সকাল নারায়ণগঞ্জ:

স্টাফ রিপোর্টার (আশিক)

কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলায় সরকার কর্তৃক জারিকৃত লকডাউন বাস্তবায়নে কাজ করছে র‌্যাব-৪। সচেতনতায় মাস্ক ও হ্যান্ড-স্যানিটাইজার বিতরণ।

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকেই সমাজের বিভিন্ন অপরাধের রহস্য উদঘাটন, অপহৃত ভিকটিম উদ্ধার ও অপহরণকারীদের গ্রেফতারসহ আইনশৃংখলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণসহ সমাজের বিভিন্ন স্তরের সুবিধা বঞ্চিত ও দুঃস্থ মানুষের ভাগ্য উন্নয়নে নিরলস ভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

বিভিন্ন ধর্মীয় অনুষ্ঠান, প্রাকৃতিক দূর্যোগসহ যেকোন পরিস্থিতে র‌্যাব-৪ সাধারণ মানুষের দুঃখ-কষ্টে পাশে থেকে কাজ করে আসছে। করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ উদ্বেগজনক হারে বাড়তে থাকায় সোমবার (৫ এপ্রিল) সকাল ৬টা হতে আগামী সাত দিনের জন্য লকডাউন ঘোষণার প্রেক্ষিতে সরকার কর্তৃক গৃহীত ১১টি বিধিনিষেধ সম্বলিত প্রজ্ঞাপন বাস্তবায়নে র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক মহোদয়, অতিরিক্ত ডিআইজি, জনাব মোঃ মোজাম্মেল হক, বিপিএম (বার), পিপিএম এর সার্বিক নির্দেশনায় র‌্যাব-৪ এর আওতাধীন এলাকায় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে।

রোবাস্ট পেট্রোলিং এর মাধ্যমে আইন শৃংখলা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ ও জনসচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন করার পাশাপাশি সার্বিক পরিস্থিতির উপর সতর্ক নজরদারি অব্যাহত আছে। নিয়মিত টহল এবং গুরুত্বপূর্ণ স্থানগুলোতে চেকপোস্ট স্থাপনের মাধ্যমে জনসচেতনতা বৃদ্ধির অংশ হিসেবে করোনাভাইরাস বিস্তার রোধে সামাজিক দুরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি পালন সাপেক্ষে জনগণের করণীয় ও বর্জনীয় বিষয়সমূহ জানানো হচ্ছে।

সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উন্মুক্ত স্থানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাচাবাজার ও নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়ের বিষয়টি পর্যবেক্ষণ করা হচ্ছে। এছাড়াও লকডাউনকে পুজি করে কোনো অসাধু চক্র যেন সুবিধা নিতে না পারে বা নিত্যপণ্য জিনিসপত্রের দাম বাড়াতে না পারে সে বিষয়ে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত রয়েছে।

সরকারি নির্দেশনাগুলো বাস্তবায়নের লক্ষ্যে যারা মাস্ক পড়ছেন না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি মাস্ক ও হ্যান্ড-স্যানিটাইজার বিতরণ করা হচ্ছে। র‌্যাব-৪ এর এই জনহিতকর কার্যক্রমের পাশাপাশি সচেতনতা ও নিরাপত্তামূলক কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।